মেইন ম্যেনু

বাস থেকে ফেলে শিক্ষার্থী হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও ৮দফা দাবি উপস্থাপন

আবদুল হাই ইদ্রিছী : বাস থেকে ফেলে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী ঘোরী মো. ওয়াসিম আব্বাস ও অটোরিকশার ধাক্কায় মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী সুমন মিয়া হত্যার প্রতিবাদে ও ঘাতক পরিবহণ শ্রমিকদের শাস্তির দাবিতে মৌলভীবাজার প্রেসক্লাব চত্ত্বরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২৭ মার্চ) দুপুরে যাত্রী অধিকার আন্দোলন মৌলভীবাজার শাখার প্রধান সমন্বয়ক আশরাফ আলীর সভাপতিত্বে ও সমন্বয়ক আব্দুল কালামের পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন শেখ বুরহান উদ্দিন (র.) ইসলামী সোসাইটির চেয়ারম্যান এম মুহিবুর রহমান মুহিব, মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী মোস্তাকিন মিয়া, তাহমীনা আক্তার, বাবুল আহমদ, আব্দুস সামাদ আজাদ, শাহ ওমর আলী, মুহিবুর রহমান, চৌধুরী মো. মেরাজ, আবদাল হোসেন, মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জাকের আহমদ অপু প্রমুখ।

এসময় আরোও বক্তব্য রাখেন কমলগঞ্জে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী সুমন মিয়ার পিতা মো: আলাউদ্দিন বাবুল ও বড় বোন রিমা আক্তার।

মানববন্ধনে যাত্রী অধিকার আন্দোলন মৌলভীবাজার শাখার প্রধান সমন্বয়ক আশরাফ আলী ৮দফা দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলো হলো-

১। ওয়াসিমের হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি।
২। সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে মৃত্যুদন্ডের বিধান রেখে আইন।
৩। সড়কে হতাহতদের ক্ষতিপূরণে ইন্সুরেন্স ব্যবস্থা চালু।
৪। নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে দ্রুত ত্রুটিপূর্ণ সড়ক সংস্কার।
৫। অভ্যন্তরীণ পরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া ও দূরপাল্লার পরিবহনে ২৫% ভাড়া ছাড়।
৬। গণপরিবহনে নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত।
৭। সড়কে হত্যাকা- ঘটনায় বিচারের দীর্ঘসূত্রিতা বন্ধ করা ও
৮। জনবান্ধব গণপরিবহন নিশ্চিত করা।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে জেলার সর্বস্তরের সচেতন নাগরিক, সামাজিক সংগঠন, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সাংস্কৃতিক সংগঠন, শিক্ষক, মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীবৃন্দ সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।



মন্তব্য চালু নেই