মেইন ম্যেনু

বিএসএফের গুলিতে আহত বাংলাদেশির মরদেহ উদ্ধার

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বুলবুল হোসেন (২৪) নামে এক বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন। সোমবার ভোর ৪টার দিকে উপজেলার মথুরাপুর কোহিনুর ক্লিনিকের সামনে থেকে বুলবুল হোসেনের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

রোববার রাত ২টার দিকে উপজেলার জামালপুর সীমান্তের ওপার ভারত ভূ-খণ্ডে বিএসএফের গুলিতে বুলবুল আহত হয়েছিলেন।

বিজিবি ও স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের জামালপুর গ্রামের মুবার হোসেনের ছেলে বুলবুল হোসেনের নেতৃত্বে ৭-৮ জন মাদক পাচারকারী অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ করে। মাদক নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশকালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার হোগলবাড়িয়া থানার নাসিরাপাড়া বিএসএফ ক্যাম্পের টহল দল তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।

এতে বুলবুল হোসেন কোমরে গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তার সহযোগীরা তাকে উদ্ধার করে বাংলাদেশে নিয়ে আসে। সোমবার ভোরে দৌলতপুর থানা পুলিশ উপজেলার মথুরাপুর কোহিনুর ক্লিনিকের সামনে থেকে তার গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করে।

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানান, মথুরাপুর বাজার থেকে বুলবুল নামে একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শুনেছি বিএসএফের গুলিতে বুলবুল আহত হয়েছিল। তার শরীরে গুলির চিহ্ন রয়েছে। ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে পরিবারের সদস্যরা তার মরদেহ ওই স্থানে ফেলে রেখে গেছে।

এ বিষয়ে ৪৭ বিজিবি অধিনস্থ জামালপুর ক্যাম্পের অধিনায়ক নায়েক সুবেদার আব্দুর রাজ্জাক জানান, জামালপুর সীমান্তের ১৫২/১৩ (এস) সীমান্ত পিলার সংলগ্ন ভারত ভূ-খণ্ডের ২শ গজ অভ্যন্তরে বিএসএফের গুলিতে বুলবুল হোসেন নামে বাংলাদেশি এক চোরাকারবারি গুলিবিদ্ধ হয়েছিল। তবে তার কোনো সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না।



মন্তব্য চালু নেই