মেইন ম্যেনু

বিবাহ বিচ্ছেদের দাবিতে মোবাইলের টাওয়ারে চড়লেন স্বামী!

টেলিফোনের টাওয়ারের ওপর উঠে স্ত্রীর কাছে বিবাহ বিচ্ছেদের দাবি জানালেন স্বামী। যিনি এই কাণ্ডটি ঘটিয়েছিলেন তার নাম অজয় কুমার।

তিনি পেশায় একজন ডাক্তার। এমন ঘটনাই ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের তেলেঙ্গা রাজ্যে।

বুধবার হঠাৎ স্থানীয় টেলিফোনের টাওয়ারে উঠে যান অজয় কুমার। সেখান থেকে একটি চিঠি নিচে ফেলে দেন তিনি। তাতে লেখা ছিল, স্ত্রীর থেকে বিচ্ছেদ চান তিনি। কিন্তু স্ত্রী ডিভোর্স পেপারে সই করছেন না। সই না করলে টাওয়ার থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করবেন তিনি।

এই খবরে প্রায় সঙ্গে সঙ্গে এলাকায় লোক জড়ো হয়ে যায়। খবর যায় পুলিশের কাছে।

পুলিশের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন অজয়ের স্ত্রীও। সকলে মিলে অজয়কে নেমে আসতে অনুরোধ করেন। কিন্তু কিছুতেই নেমে আসতে রাজি হননি চিকিৎসক। শেষে প্রায় চার ঘণ্টা বাদে ডিভোর্স পেপারে সই করতে রাজি হন তার স্ত্রী। তারপরই টাওয়ার থেকে নামতে রাজি হন অজয়।

জানা গেছে, প্রায় সাত বছর ধরে বিবাহিত অজয় এবং তার স্ত্রী লাস্য। চার বছরের এক কন্যাও রয়েছে তাদের। প্রায়ই তাদের মধ্যে ঝামেলা লেগে থাকত। কয়েকমাস আগে স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় হেনস্থার অভিযোগ দায়ের করেছিলেন লাস্য। পরে অবশ্য তা ফিরিয়ে নেন। এর জন্যই স্ত্রীর কাছ থেকে ডিভোর্স চেয়েছেন বলে জানান অজয়। তার এমন কীর্তিতে হতবাক তেলঙ্গানার বাসিন্দা।






মন্তব্য চালু নেই