মেইন ম্যেনু

বিশ্বের শীর্ষ ধনী দেশ অস্ট্রেলিয়া!

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশের তকমা এখন অস্ট্রেলিয়ার মুঠোয়। যুক্তরাষ্ট্রকে কোটিপতিদের দেশ বলা হলেও একটি দেশ প্রকৃতপক্ষেই ধনী কি না, তা যে অঙ্কের ওপর নির্ভর করে, সে অঙ্কে বিশ্বের শীর্ষ ধনীদের দেশ এখন অস্ট্রেলিয়া। আর এমনটাই বলছে সুইজারল্যান্ডের বহুজাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান ক্রেডিট সুইসের গেল অক্টোবর মাসের প্রতিবেদন। দেশটির প্রতিজন প্রাপ্তবয়স্কের সম্পদের গড় সম্পদের পরিমাণ হিসাব করে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

প্রতিবেদনটিতে ধনীদের দেশের তালিকায় শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্রের কথা বলা হয়েছে। তবে প্রতিবেদনটি একটু গভীর পর্যালোচনা করলে দেখা মেলে ভিন্ন দৃশ্যের। সে দৃশ্যে অস্ট্রেলিয়া ধনী দেশ। আর এ নিয়ে গতকাল শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার প্রধান প্রধান সব সংবাদমাধ্যম ফলাও করে খবর প্রচার করছে।

এটা সত্য যে সবচেয়ে দ্রুত বৃদ্ধি পাওয়া সম্পদের পরিমাণের দিক থেকে বিশ্বের যেকোনো দেশের চেয়ে শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে একটি দেশের প্রতিজন প্রাপ্তবয়স্কের সম্পদের গড় সম্পদের পরিমাণ হিসাব করলে যুক্তরাষ্ট্র শীর্ষ তালিকা থেকে ছিটকে পড়ে। আর সেই গড়পড়তায় শীর্ষ ধনীদের দেশ সুইজারল্যান্ড। আর দ্বিতীয় স্থানে অস্ট্রেলিয়া, তৃতীয় যুক্তরাষ্ট্র। তালিকার দশম স্থানে রয়েছে ফ্রান্স আর নবম স্থানে সিঙ্গাপুর। তাহলে শিরোনামটি কি ভুয়া?

না, মোটেও না। প্রতিবেদনটির তালিকাটি করা হয়েছে একটি দেশের মোট সম্পদের পরিমাণকে মোট জনসংখ্যা দ্বারা ভাগ করে। অর্থাৎ ১০ হাজার টাকাকে ১ হাজার জন দ্বারা ভাগ করে বলা হয়েছে, প্রতিজনের কাছে ১০ টাকা করে রয়েছে।

এই সূত্রমতে, যুক্তরাষ্ট্রের সব প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির কাছেই গড়ে প্রায় চার লাখ ডলার রয়েছে। অন্যদিকে, ক্রেডিট সুইসেরই প্রতিবেদন বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি ২০ জনের একজন কোটিপতি। প্রতিবেদন অনুযায়ী বিশ্বের কোটিপতিদের মধ্যে ৪১ শতাংশই মার্কিন নাগরিক।

তবে একটি দেশের গড় সম্পদের পরিমাণের চেয়ে যদি হিসাব করা হয় দেশে মোট জনসংখ্যার ঠিক কতজন ধনী, তবে কিন্তু পাল্টে যায় দৃশ্য। ক্রেডিট সুইস ঠিক সে পরিসংখ্যানই করেছে। প্রতিটি দেশের মাঝারি বা মধ্যম আয়ের মানুষের সম্পদ পরিমাণের হিসাবে শীর্ষ ধনীদের দেশের তালিকাও প্রকাশ করেছে প্রতিবেদনটিতে। আর সেই তালিকার শীর্ষ ধনী দেশ অস্ট্রেলিয়া। আর যুক্তরাষ্ট্র শীর্ষ দশেও নেই। এ তালিকায় প্রথম দেশ অস্ট্রেলিয়ার মধ্যম আয়কারী প্রাপ্তবয়স্কদের গড় সম্পদের পরিমাণ ১ লাখ ৯১ হাজার ৪৫৩ মার্কিন ডলার। দ্বিতীয় স্থানের দেশ সুইজারল্যান্ডের গড় প্রায় আয় ১ লাখ ৮৩ হাজার, তৃতীয় বেলজিয়ামের আয় প্রায় ১ লাখ ৬৩ হাজার ডলার। দশম স্থানের দেশ সিঙ্গাপুরের মধ্যম আয়কারী প্রাপ্তবয়স্কদের গড় সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৯১ হাজার ডলার এবং নবম স্থানের যুক্তরাজ্যের গড় আয় প্রায় ৯৭ হাজার। ক্রেডিট সুইসের প্রতিবেদনে অস্ট্রেলিয়ানরা বিশ্বের সবচেয়ে ধনী মানুষ।



মন্তব্য চালু নেই