মেইন ম্যেনু

ব্যয়ের হিসাব দিতে বিএনপিসহ ৩৮ দলকে আরও ১ মাস সময়

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ব্যয়ের হিসাব জমা না দেয়ায় ৩৮টি রাজনৈতিক দলকে আরও এক মাস সময় দিয়ে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

রোববার এ চিঠি দেয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছেন ইসির উপসচিব মো. আব্দুল হালিম খান।

বিধান অনুযায়ী, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে সব রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব জমা দিতে হয়। গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই হিসাবে ৯০ দিন পেরিয়ে গেলেও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ছাড়া নিবন্ধিত বাকি ৩৮টি রাজনৈতিক দল এখন পর্যন্ত নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব জমা দেয়নি। এ রকম পরিপ্রেক্ষিতে এক মাস সময় বাড়ালো নির্বাচন কমিশন।

এ বিষয়ে আব্দুল হালিম খান বলেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ব্যয় হিসাব জমা দেয়ার জন্য রাজনৈতিক দলগুলোকে অতিরিক্ত এক মাসের সময় দেয়া হয়েছে। ৯ জুনের মধ্যে তাদের নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব জমা দিতে হবে। নির্বাচন কমিশন ইতোমধ্যে বিষয়টির অনুমোদন দিয়েছে।’

গত ৫ মে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছিলেন, ‘যারা প্রার্থী তারা ব্যয়ের হিসাব দেবে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে। আর দলগতভাবে দেবে নির্বাচন কমিশনের কাছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ছাড়া আর কোনো রাজনৈতিক দল আমাদের কাছে ব্যয়ের হিসাব আমাদের কাছে দেয়নি। কমিশনের ক্ষমতা আছে, কিছুদিন তাদের সময় বাড়ানোর। তারপরও যদি না দেয়, তাদের আমরা কারণ দর্শানোর নোটিশ দেব। অন্যান্য আইনানুগ ব্যবস্থা যা আছে, আমরা নেব।’

কী ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে- এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমরা কারণ দর্শানোর নোটিশ দেব। এরপরও যদি তারা জমা না দেয়, মামলা দায়েরের ব্যবস্থা করব। তবে আমার জানা মতে, রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে ইতোমধ্যে সব প্রার্থীরাই তাদের ব্যয়ের হিসাব জমা দিয়েছে।’

দলের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘কোনো রাজনৈতিক দল যদি ব্যয়ের হিসাব না দেয়, কমিশন মনে করলে নিবন্ধন বাতিল করে দিতে পারে।’



মন্তব্য চালু নেই