মেইন ম্যেনু

ভাইরাল ছবি নিয়ে মুখ খুললেন ছাত্রলীগ সভাপতি শোভন

দীর্ঘ এক বছর প্রতীক্ষার পর গত সোমবার বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হয়েছে। কমিটিতে স্থান পেয়েছে ৩০১ জন। কমিটির তালিকা গণমাধ্যমে প্রকাশ পাওয়ার পর থেকে চলছে নানা আলোচনা সমলোচনা।

ঘোষিত ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে ইতিমধ্যে দুপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন। এই কমিটি নিয়ে এখনও উত্তেজনা বিরাজ করছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। চলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ।

কমিটির তালিকা প্রকাশের পদ পাওয়া বিভিন্ন নেতার নামে নানা অভিযোগ তোলা হয়। এ থেকে বাদ পড়েনি খোদ ছাত্রলীগের সভাপতিও।

কয়েকদিন ধরে শোভনের সঙ্গে একটি মেয়ের ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। ছাত্রলীগের অনেকেই ওই মেয়েকে শোভনের স্ত্রী হিসেবে দাবি করছেন। তাদের প্রশ্ন, বিবাহিত শোভন কিভাবে ছাত্রলীগের শীর্ষ পদে থাকেন?

এ প্রেক্ষাপটে বিষয়টি নিয়ে প্রথমবারের মতো মুখ খুললেন শোভন। বুধবার রাত ১২টার দিকে ধানমণ্ডিতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, আমার কি কোনো বান্ধবী থাকতে পারে না? ওই মেয়েটা আমার বান্ধবী। তবে এর বেশি কিছু আমি বলবো না।

বিষয়টি নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, সভাপতি হওয়ার আগেও এই বিষয়টি নিয়ে অনেকে প্রশ্ন তুলেছিলেন। তবে একদিন এই প্রশ্নের জবাব দিব। আজ এতটুক বলবো, উনি আমার বান্ধবী।

এ সময় শোভন বলেন, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সদ্য ঘোষিত ৩০১ সদস্য বিশিষ্ট ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে বিতর্কিতদের বাদ দেয়া হবে। সেক্ষেত্রে পদবঞ্চিতদের কমিটিতে পদায়ন করা হবে। তবে পূর্ণাঙ্গ কমিটি বহাল থাকবে। এ সময় সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।



মন্তব্য চালু নেই