মেইন ম্যেনু

মদিনার কাছে শত শত রহস্যময় ‘দরজা’ কিসের?

সৌদি আরবের মদিনা শহরের উত্তরে হারাত খায়বার অঞ্চলে খুঁজে পাওয়া গেছে প্রায় ৪০০ রহস্যময় দেয়ালসদৃশ্য বস্তু। বিশেষ আকৃতির কারণে সেগুলোর নাম দেওয়া হয়েছে ‘গেটস’ বা দরজা।

যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্বের অধ্যাপক ডেভিড কেনেডি গুগল আর্থের ম্যাপিং সেবা ব্যবহার করে ওই দেয়ালগুলো খুঁজে পেয়েছেন। সেগুলো নয় হাজার বছরের পুরোনো বলে ধারণা করা হচ্ছে।

লন্ডনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দি ইনডিপেন্ডেন্টের খবরে বলা হয়, এর আগেও মধ্যপ্রাচ্যের সিরিয়া ও ইয়েমেনের বিভিন্ন অঞ্চলে এই ধরনের রহস্যময় দেয়াল পাওয়া গেছে। সেগুলো স্যাটেলাইট থেকে দেখলে দরজার আকৃতির মনে হয়। এ জন্যই দেয়ালগুলোকে এই বিশেষ নাম দেওয়া হয়েছে। সৌদি আরবে খুঁজে পাওয়া দেয়ালগুলোও অনেকটাই সেগুলোর মতো।

তবে কী উদ্দেশে ওই দেয়ালগুলো তৈরি করা হয়েছিল তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আরবের স্থানীয় বেদুইনদের কাছে সেগুলো ‘প্রাচীন মানুষের কাজ’ নামে পরিচিত।

এ বিষয়ে অধ্যাপক কেনেডি জানান, সৌদি আরবে খুঁজে পাওয়া নতুন এই দেয়ালগুলো আগেরগুলোর থেকে অনেকটাই আলাদা। এগুলোর আকৃতি ১৩ মিটার থেকে শুরু করে এক কিলোমিটার পর্যন্ত। সেগুলোর কয়েকটা আবার আগ্নেয়গিরির চূড়ায় অবস্থিত।

কেনেডি আরো বলেন, ‘দরজা’ ছাড়াও কিছু রহস্যময় আকৃতির দেয়াল পাওয়া গেছে। স্থানীয়ভাবে সেগুলো ‘কাইটস’ বা ঘুড়ি নামে পরিচিত। ধারণা করা হচ্ছে, সেগুলো বিভিন্ন প্রাণী ধরার ফাঁদ হিসেবে ব্যবহার করা হতো। রহস্যময় এই স্থাপত্যগুলো ‘নিওলিথিক’ যুগের বলেই ইশারা করে।






মন্তব্য চালু নেই