মেইন ম্যেনু

মাগুরায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০, ঘরবাড়ি ভাংচুর

মাগুরা প্রতিনিধি : মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার খর্দ্দফুলবাড়ি এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ২০জন আহত, ২০টি ঘরবাড়ি দোকানঘর ভাংচুর সহ লুটপাটের ঘটনা রবিবার সকালে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষে গুরুতর আহত কামাল (২৫) কে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এবং নাসিরুল (৪০), রমজান (৩০), একিন (৩৫) কে মাগুরা সদর হাসপাতালে ও তাহাজ্জৎ (৬২), লায়েব (৩২), সাহেব আলী (৪২), মুনছুর (২৩), মনিরুল (২৩), নান্নু শেখ (৩০), এনামুল (২৬), রাজিবুল শেখ (১৯), তবিবার শেখ (৪৫) কে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, খোর্দ্দফুলবাড়ি গ্রামের শিমুল ও একিনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মনোমালিন্য চলে আসছিলো। এরই জের ধরে গত শনিবার সন্ধ্যায় চায়ের দোকানে শিমুল সমর্থক শওকত ও একিন সমর্থক ফুলমিয়ার মধ্যে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতি হয়। এ সময় একটি বসতঘর ও একটি দোকান ভাংচুর করা হয়। পরের দিন রবিবার সকালে ওই ঘটনার জের ধরে দু’পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। খবর পেয়ে মহম্মদপুর থানা ও নহাটা ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এলাকায় পূনরায় সংঘর্ষ এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

মহম্মদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. রবিউল হোসেন বলেন, এলাকার পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে। পরবর্তি সংর্ঘষ এড়াতে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই