মেইন ম্যেনু

মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা, জেলেদের মহাসড়ক অবরোধ

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বাইপাস এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করেছেন মৎস্যজীবীরা। সমুদ্রে মাছধরার নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার দাবিতে রোববার সকাল ১০টা থেকে মহাসড়কে অবস্থান নেন তারা। স্থানীয় ৩৮টি জেলে পল্লীর মৎস্যজীবীরা মহাসড়ক অবরোধ করেছেন। এর ফলে সীতাকুণ্ড বাংলাবাজার বাইপাস এলাকায় মহাসড়কে উভয়পাশে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। বৃষ্টি উপেক্ষা করে জেলে পরিবারের নারী ও পুরুষ সদস্যরা অবরোধে অংশ নিয়েছেন। মহাসড়কে যানজটে আটকা পরে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন দূরপাল্লার যাত্রীরা।

উত্তর চট্টলা উপকূলীয় মৎস্যজীবী জলদাস সমবায় কল্যাণ ফেডারেশনের সভাপতি লিটন জলদাস জানান, পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে মহাসড়ক অবরোধ করা হয়েছে। গত ১ জুন থেকে স্থানীয় জেলেদের মাছধরার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকার।

লিটন জলদাশ জানান, প্রতিবছর ২৩ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত সাগরে মাছ ধরার নিষেধাজ্ঞা দেয়া হলেও আগে ছোট কাঠের নৌকায় স্থানীয় জেলেরা মাছ শিকার করতে পারতেন। কিন্তু গত ১ জুন থেকে স্থানীয় জেলেদেরও মাছ শিকারের নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। এর ফলে সীতাকুণ্ডের ৩৮টি জেলে পল্লীর শত শত জেলে পরিবার অর্ধাহারে অনাহারে মানবেতর জীবন-যাপন করছে। এই অবস্থায় স্থানীয় জেলেদের মাছ ধরার নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে এই অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

এদিকে সকাল ১০টার পর জেলেরা মহাসড়কে অবস্থান নিলে পুলিশ তাদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। তবে মৎসজীবীরা সড়কের দুই পাশে অবস্থান নিয়ে তাদের অবোরোধ অব্যাহত রেখেছেন। পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসন তাদের আশস্ত করে সড়ক মুক্ত করতে চেষ্টা চালাচ্ছে।



মন্তব্য চালু নেই