মেইন ম্যেনু

মাদকবিরোধী অভিযান: ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত আরও ১০

দেশজুড়ে মাদকবিরোধী অভিযান অব্যাহত রয়েছে। রোববার রাতে রাজধানীসহ দেশের ৮ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে ১০ মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত হয়েছেন।

এদের মধ্যে ঝিনাইদহ ও সাতক্ষীরায় মাদকের টাকা ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে গোলাগুলিতে নিহত হয়েছেন ৩ জন।

রাজধানীর মিরপুর চলন্তিকা বস্তির মাদক নিয়ন্ত্রক রুপনগরে ডিবির সাথে বন্দুকযুদ্ধে একজন নিহত হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনার পথে তার মৃত্যু হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল এবং ৫ লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলা ও দেবীদ্বারে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দোলন মিয়া ও নরু মিয়া নামের ২ মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়। তাদের নামে থানায় হত্যা ও মাদকের একাধিক মামলা রয়েছে।

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে লাল বাদশা নামে একজন নিহত হয়। পুলিশের দাবি সে মাদক ব্যবসায়ী।

নাটোরের সিংড়ার ভাগনাগরকান্দি এলাকায় র‌্যাবের সাথে গোলাগুলিতে নিহত হয় আরেক মাদক ব্যবসায়ী। পরে সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ মাদক, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়।

মুন্সিগঞ্জ ও পিরোজপুর সদরে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয় ২ মাদক ব্যবসায়ী।

এছাড়া ঝিনাইদহ সদর উপজেলার জাড়গ্রামে মাদকের টাকা ভাগাভাগি নিয়ে দু’দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে গোলাগুলিতে একজন নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, ২ রাউন্ড গুলি, এক কেজি গাঁজা, ২০ বোতল ফেন্সিডিল ও ৬ জোড়া স্যান্ডেল উদ্ধার করা হয়।

সাতক্ষীরায় দু’দল মাদক ব্যবসায়ীদের মধ্যে দ্বন্দের জেরে গোলাগুলিতে ২ জন নিহত হয়েছে। খবর পেয়ে সোমবার ভোরে ঘেটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।



মন্তব্য চালু নেই