মেইন ম্যেনু

মামলার শুনানিকালে খালেদা জিয়ার আইনজীবীর মৃত্যু

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আইনজীবী টি এম আকবর শুনানি চলার সময় মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৬।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে পুরান ঢাকার বকশি বাজারের আলিয়া মাদ্রাসায় বিশেষ জজ ৫ নম্বর আদালতে শুনানির সময় স্ট্রোকে (মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ) প্রবীণ এই আইনজীবী মারা যান।

প্রয়াত টি এম আকবর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চলমান জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার আইনজীবী ছিলেন। আজ চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার শুনানি চলছিল।

খালেদা জিয়ার আরেক আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া জানান, আজ শুনানির সময় আইনজীবী টি এম আকবর স্ট্রোকে আক্রান্ত হন এবং বারডেম হাসপাতালে নেওয়ার পর তাঁর মৃত্যু হয়।

জানা গেছে, মামলার আসামি ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খানের পক্ষে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপপরিচালক নুর আহমেদের জেরা শুরু করেন আইনজীবী আকবর। জেরার একপর্যায়ে তিনি অসুস্থ বোধ করে মেঝেয় পড়ে যান। দ্রুত সেখান থেকে বারডেম হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

আইনজীবী আকবরের অসুস্থ হওয়ার পর বিচারক ড. মো. আকতারুজ্জামান এজলাস থেকে নেমে যান। মৃত্যুর খবর আসার পর আগামী ১২ অক্টোবর পর্যন্ত আদালত মুলতবি করা হয়।

এর আগে আজ মামলার বিএনপি চেয়ারপারসন চিকিৎসার জন্য বিদেশে থাকায় তাঁর পক্ষে সময়ের আবেদন করা হয়। পরে আদালত আবেদন মঞ্জুর করেন।

ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট টি এম আকবরের আকস্মিক মৃত্যুতে বিএনপি শোক প্রকাশ করেছে।






মন্তব্য চালু নেই