মেইন ম্যেনু

মামলা খারিজের পর যা বললেন ব্যারিস্টার সুমন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করায় বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের করা মামলা খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

রোববার দুপুরে ঢাকা মহানগর হাকিম জিয়াউর রহমানের আদালতে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

পেনাল কোডের ১২৩ (এ), ১২৪ (এ) ও ৫০০ ধারায় মামলাটি আমলে নেয়ার জন্য ব্যারিস্টার সুমন আদালতে আবেদন করেন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে পরে মামলা খারিজের আদেশ দেন।

মামলা করার পর ব্যিারিস্টার সুমন বলেন, এটা একটি আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের অংশ। প্রিয়া সাহা কেবল মাত্র আমেরিকান পাসপোর্ট পাওয়ার জন্য এটা করেনি। এর পেছনে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র রয়েছে।

ব্যারিস্টার সুমন আরে বলেন, বাংলাদেশ হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিষ্ট্রান সকলের। আমরা বলি না এখানে কখনো সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন হয়নি। তবে উনি যতোটা বলেছেন সে পরিমান সংখ্যালঘু মানুষইতো নেই এদেশে।

এদিকে রোববার সকালে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে ঢাকায় দুটি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৃথক দুটি মামলা করা হয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই