মেইন ম্যেনু

মালিতে নিহত তিন শান্তিরক্ষীর জানাজা

আফ্রিকার মালিতে সন্ত্রাসীদের পুঁতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে নিহত তিন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীর জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে আজ। রোববার সকালে ঢাকা সেনানিবাসস্থ ১৩ এমপি ইউনিটের ‘চপার্স ডেনে’ এই জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

জানাজায় সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক, নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল নিজামউদ্দিন আহমেদ, ভারপ্রাপ্ত বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার ভাইস মার্শাল মশিহুজ্জামান সেরনিয়াবাতসহ ঢাকা সেনানিবাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ও সব পদবীর সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জানাজার পর বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান এবং মালিতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন (মিনুসমা) এর ফোর্স কমান্ডার মেজর জেনারেল জ্যাঁ-পল ডিকোনিন্ক শহীদদের কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর শান্তিরক্ষীদের মরদেহ নিজ নিজ গ্রামের বাড়িতে পাঠানো হয়। সেখানে সম্পূর্ণ সামরিক মর্যাদায় তাদের দাফনকার্য সম্পন্ন হবে।

উল্লেখ্য, মালিতে শান্তিরক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার সময় গত ২৩ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের সঙ্গে সন্ত্রাসীদের সংঘর্ষ হয়। এতে শান্তিরক্ষীরা সফলভাবে তাদের প্রতিহত করে। এরই ধারাবাহিকতায় ২৪ সেপ্টেম্বর দায়িত্ব পালন শেষে ক্যাম্পে ফেরার পথে আবারও তারা সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন। সাহসিকতা ও সফলতার সঙ্গে তারা পুনরায় সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করেন। তবে সংঘর্ষের একপর্যায়ে সন্ত্রাসীদের পুঁতে রাখা ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইজ (আইইডি) বিস্ফোরণে তিন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহত এবং চারজন আহত হন।

নিহত শান্তিরক্ষীরা হলেন- সার্জেন্ট আলতাফ, ল্যান্স কর্পোরাল জাকিরুল, সৈনিক মনোয়ার। এরা সবাই জাতিসংঘ শান্তি মিশনে কর্মরত ছিলেন। আহতরা হলেন মেজর জাদিদ, পদাতিক (ঢাকা), কর্পোরাল মহিম, পদাতিক (নোয়াখালী), সৈনিক সবুজ, পদাতিক (নওগাঁ) এবং সৈনিক সরোয়ার, পদাতিক (যশোর)।






মন্তব্য চালু নেই