মেইন ম্যেনু

মুক্তিযোদ্ধা ভাতা এক লাখ টাকা করার দাবি

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম বলেছেন, সখীপুরে একমাত্র খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা বীর প্রতীক হামিদুল হক। ’৭১ সালে হামিদুল হক ও আবদুস সালাম সিদ্দিকী মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদান রেখেছেন। আবদুস সালাম সিদ্দিকী প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা হয়েও তালিকায় তার নাম না উঠায় সাংঘাতিক আঘাত পেয়েছেন এবং তাদের খবর কেউ রাখেননি।

মুক্তিযোদ্ধা ছেলেখেলা ছিল না। আমিই প্রথম মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতার দাবি করেছিলাম। ২০০ থেকে মাসিক ১০ হাজার টাকা পাচ্ছেন তারা। আমি বেঁচে থেকে দেখে যেতে চাই এবং সরকারের কাছে জোর দাবি করছি, মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা মাসিক এক লাখ টাকা করতে হবে।

সোমবার রাতে সখীপুরে কাদেরিয়া বাহিনীর সহকারী বেসামরিক প্রধান বীর প্রতীক হামিদুল হক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম সিদ্দিকীর মৃত্যুতে কাদেরিয়া বাহিনীর পক্ষ থেকে স্মরণসভার আয়োজন করা হয়।

উপজেলা হলরুমে আয়োজিত সভায় প্রয়াত দুই মুক্তিযোদ্ধার স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হালিম সরকারের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন কাদেরিয়া বাহিনীর বেসামরিক প্রধান আবু মোহাম্মদ এনায়েত করিম, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার খোকা বীর প্রতীক, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত শিকদার, পৌর মেয়র আবু হানিফ আজাদ, ইউএনও মৌসুমী সরকার রাখী, শম আমজাদ হোসেন, এমও গণি, আতাউর রহমান ও আলমগীর সিদ্দিকী প্রমুখ। বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম বলেন, যেদিন অস্ত্র জমা দিয়েছিলাম, সেদিন বঙ্গবন্ধুর কাঁধে কিংবা হাতে নিয়ে জমা দিতে পারতাম।

কিন্তু সম্মান করে তার পায়ের নিচে বিছিয়ে দিয়েছিলাম। তাকে পিতার মতো মনে করে যুদ্ধ করেছিলাম। সেই পিতাকে যখন খুনিরা হত্যা করে আর যাদের হাতে অস্ত্র ছিল, তারা প্রতিবাদ করেনি। আমিই প্রতিবাদ করেছি।



মন্তব্য চালু নেই