মেইন ম্যেনু

মৌমিতার আত্মহত্যার কারণ

মিডিয়া কর্মীদের আত্মহত্যা করার ঘটনা ঘটছে প্রায়ই। অনেক স্বপ্ন দেখে মিডিয়াতে পা রেখে যখন কাঙ্খিত স্বপ্নটি আর পূর্ণ হয় না। তখনই যে এই মৃত্যুর সহজ পথটি বেছে নেয় তারা। কলকাতার মৌমিতা সাহা নামের উঠতি অভিনেত্রীটির ক্ষেত্রেও কি তেমনই ঘটলো। গত শুক্রবার কলকাতার রিজেন্ট পার্কের একটি ফ্ল্যাট থেকে মৌমিতা সাহা নামের এক উঠতি অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

সেই সঙ্গে উদ্ধার করে একটি সুইসাইড নোটও। সুইসাইড নোট বলছে হতাসাই কেড়ে নিলো মেয়েটির প্রাণ। মৌমিতার লেখা সুইসাইড নোটে লেখা ছিলো , ‘আমার আর অভিনেত্রী হওয়া হলো না।’ এই সুইসাইড নোট পড়ে প্রাথমিক ভাবে পুলিশ ধারণা করেন, মানসিক অবসাদের জেরেই আত্মহত্যা করেছেন ২৩ বছরের অভিনেত্রী মৌমিতা।

এদিকে, অভিনেত্রী মৌমিতার মরদেহ উদ্ধারের বিষয়ে স্থানীয় পুলিশ জানেয়েছে, টলিউডে মডেলিং ও অভিনয়ের সূত্রে দুই বছর আগে থেকে রিজেন্ট পার্ক থানা এলাকার অশোকনগরে ভাড়া বাড়িতে একাই থাকতে শুরু করেন মৌমিতা। শুক্রবার দুপুরের পর থেকে মৌমিতার পরিজনেরা তার মোবাইলে যোগাযোগ করতে না পারায় রাতে বাড়ির মালিককে জানান।

রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ অনেক ডাকাডাকির পরেও মৌমিতা দরজা না খোলায় প্রতিবেশীদের সাহায্যে বাড়িওয়ালা দরজা ভাঙেন। ভেতরে গলায় ওড়না দিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় মৌমিতাকে দেখা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে এম আর বাঙুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।



মন্তব্য চালু নেই