মেইন ম্যেনু

যে আটটি অ্যাপকে অ্যান্ড্রয়েড ব্ল্যাক লিস্টেড করেছে

অনেকে এমন আছেন যাদের মাঝে মাঝেই অ্যান্ড্রয়েড ফোনে নানা রকম সমস্যা দেখা দেয়। যার মধ্যে হ্যাং করে যাওয়ার মতো সমস্যা সাধারণ ব্যাপার।

তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এর অনেকটাই হয় নানা অ্যাপের কারণে। তাই বেশ কিছু অ্যাপকে ব্ল্যাক লিস্টেড করেছে অ্যান্ড্রয়েড। একবার দেখে নেওয়া যাক সেই তালিকা-

১. পুট ডিবাগ নামে একটি অ্যাপ এই তালিকার প্রথমে রয়েছে। বলা হয়েছে, এই অ্যাপের ফলে ফোনে ম্যালওয়ার ভাইরাস ঢুকে পড়তে পারে। তাই ফোনকে পরিষ্কার রাখতে এই অ্যাপ ইনস্টল না করাই ভালো।

২. অনেকেই ফোনকে নতুন করে সাজাতে নানা রকম থিম ফোনে ইনস্টল করেন। অ্যান্ড্রয়েড সিস্টেম থিম নামে সেই ধারার একটি অ্যাপকেও ব্ল্যাক লিস্টেড করা হয়েছে। এখানেও আছে ম্যালওয়ারের ভয়।

৩. হোয়্যারস মাই ড্রোয়েড বলে একটি অ্যাপের প্রো ভার্সানকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে অ্যান্ড্রয়েড।

এখানেও ম্যালও্যার হামলার সম্ভাবনা রয়েছে।
৪. ওয়াইল্ড ক্রোকোডাইল স্টিমুলেটর নামে একটি গেম অ্যাপের কথাও এক্ষেত্রে বলা হচ্ছে। সেই গেমটিতেও রয়েছে ম্যালওয়ারের সম্ভবনা।

৫. স্টার ওয়ার ও জিজিজেড ভার্সান নামে দুটি অ্যাপের কথা এই তালিকায় বলা হয়েছে। এই দুটিই গেম অ্যাপ্লিকেশন। বলা হচ্ছে, এই দুটি দিয়েও মোবাইলে ঢুকে পড়তে পারে ম্যালওয়ার ভাইরাস। চিকেন পাজল নামে একটি অ্যাপের ক্ষেত্রেও রয়েছে এই একই সমস্যা

৬. বয়ফ্রেন্ড ট্রাকার নামে একটি লোকেশন ভিত্তিক অ্যাপের কথা এই তালিকায় বলা হয়েছে, যেটি দিয়ে আপনার ফোনের গোপন তথ্য ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

৭. ডিভাইস অ্যালাইভ নামে একটি সিকিউরিটি অ্যাপের ক্ষেত্রেও রয়েছে ভাইরাস আক্রমণের সমস্যা। এর মধ্যে থেকেও ম্যালওয়ারের হামলা হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

৮. আবহাওয়ার তথ্য পেতে একাধিক অ্যাপ ইনস্টল করেন। তাদের জন্যও রয়েছে ভয়ের ব্যাপার। বলা হচ্ছে, ওয়েদার অ্যাপটির মাধ্যমে ক্ষতি হতে পারে ফোনের। ‌



মন্তব্য চালু নেই