মেইন ম্যেনু

যে কারণে শপথ অনুষ্ঠানে ছিল না ইমরান খানের দুই ছেলে

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শনিবার শপথ নিয়েছেন দেশটির তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টির প্রধান ইমরান খান। কিন্তু শপথ অনুষ্ঠানে ছিল তার দুই ছেলে। বাবার ইচ্ছার দাম দিতে গিয়ে তারা যায়নি বলে জানিয়েছেন ইমরানের সাবেক স্ত্রী জেমাইমা গোল্ডস্মিথ।

১৯৯৫ সালে যুক্তরাজ্যের বনেদি ব্যবসায়ী পরিবারের মেয়ে জেমাইমাকে বিয়ে করেন ইমরান। তখন ইমরানের বয়সের অর্ধেক ছিল জেমাইমার বয়স।

তাদের ওই বিয়ে টিকেছিল নয় বছর। এ জুটির দুই ছেলে সুলাইমান খান ও কাশিম খান। বিচ্ছেদের পর ছেলেদের নিয়ে যুক্তরাজ্যেই বসবাস করছেন চলচ্চিত্র, প্রামাণ্যচিত্র ও টিভি অনুষ্ঠান প্রযোজক জেমাইমা।

গত ২৫ জুলাইয়ের সাধারণ নির্বাচনে ইমরানের দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই)জয়ের খবর ছড়িয়ে পড়ার পর এক টুইটে জেমাইমা ছেলেদের বাবার এই সাফল্যে অভিনন্দন জানিয়ে লিখেছিলেন, ২২ বছর, অপমান, বাধা আর ত্যাগের পর আমার ছেলেদের বাবা এখন পাকিস্তানের হবু প্রধানমন্ত্রী।

পিটিআই সমর্থকদের অনেকে আশা করেছিলেন বাবার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ এই সময়ে হয়তো ছেলেরা পাকিস্তানে আসবে।

কিন্তু সুলাইমান ও কাশিম বাবার শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত না হয়ে স্কটল্যান্ডে ছুটি কাটাতে ব্যস্ত থাকায় অনেকেই বিরক্তি প্রকাশ করেছেন।

যার জাবাবে জেমাইমা লেখেন, তারা সেখানে যেতে চেয়েছিল। কিন্তু তাদের বাবাই তাদের সেখানে যেতে নিষেধ করেছেন। জেমাইমার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ২০১৪ সালে পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ সাংবাদিক রেহাম খানকে বিয়ে করেন ইমরান, ওই বিয়ে এক বছরও টেকেনি। এ বছর বুশরা মানেকা নামে এক নারী পীরকে বিয়ে করেন ইমরান।



মন্তব্য চালু নেই