মেইন ম্যেনু

রক্ত পৌঁছে দিচ্ছে ড্রোন

ড্রোনের সাহায্যে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেয় জিপলাইন নামে এমন একটি কোম্পানি জানিয়েছে, তারা এমন একটি সার্ভিস চালু করেছে যার মাধ্যমে প্রতিদিন ৫শ প্যাকেট প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়া সম্ভব হবে। আফ্রিকার দেশ রুয়ান্ডায় জিপলাইন তাদের ড্রোনের মাধ্যমে মানুষের কাছে জরুরি ভিত্তিতে রক্ত পৌঁছে দিচ্ছে। নতুন এই ড্রোনটির ওজন ২০ কেজি এবং এটি দেড় কেজির বেশি মালামাল বহন করতে পারে।

দু’টি গাড়ি রাখতে যতটুকু জায়গা প্রয়োজন, ততটুকু জায়গায় এই ড্রোনটি জিনিসপত্র রেখে আসতে পারবে। মার্কিন ফেডারেল এভিয়েশন অথরিটি কর্তৃক আয়োজিত একটি পরীক্ষামূলক আয়োজনে অংশ নেয়ার পর জিপলাইনের প্রতিষ্ঠাতা কিনান ওয়াইরোবেক জানিয়েছেন, এই ড্রোনটি বেশ দ্রুত উড়তে পারে এবং এতে বেশ কয়েকটি মোটর রয়েছে। একটি মোটর অচল হয়ে গেলে অন্যটির মাধ্যমে এটি উড়তে পারবে।

এই ড্রোনটি সর্বোচ্চ ১২৮ কিলোমিটার বেগে উড়তে পারে এবং একটানা ১৬০ কিলোমিটার যেতে পারবে। কাগজে তৈরি এক ধরনের প্যারাসুটের মাধ্যমে এই ড্রোনের ভেতরে ছোট বাক্সে করে রক্ত রাখা হয়। কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা জানিয়েছেন, এই ড্রোনের নকশায় পরিবর্তন আনা হয়েছে। এর মাধ্যমে তাদের সেবা দেয়ার পরিধি আরো বাড়বে বলে উল্লেখ করেন তিনি। ২০১৭ সালে জিপলাইন কোম্পানি তানজানিয়ায় তাদের সেবা বিস্তৃত করার ঘোষণা দিয়েছিল।



মন্তব্য চালু নেই