মেইন ম্যেনু

লোকটিকে ৭০ কিলোমিটার টেনেহিঁচড়ে নিয়ে গেল বাস!

তখন রাত পৌনে ৩টা। ভারতের কর্নাটক পরিবহন সংস্থার (কেএসআরটিসি) বাসচালক মহিউদ্দিন তামিলনাড়ুর কুন্নুর থেকে মহীশূর-মান্ড্য হয়ে চানাপাটনার রাস্তা ধরে বেঙ্গালুরুর শান্তিনগর বাস ডিপোতে ফিরছিলেন। ডিপোতে বাসটি পার্ক করে রেস্ট রুমে ঘুমাতে চলে যান চালক। পরদিন সকালে বাসটিকে ধোয়ার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। আর তখনই বেরিয়ে আসে মর্মান্তিক এক ঘটনা।

বাসের নিচে আটকে থাকা অবস্থায় একটি মৃতদেহ দেখতে পান এক কর্মী। সঙ্গে সঙ্গে অন্য কর্মীদের ডেকে বিষয়টি জানান। খবর দেওয়া হয় পুলিশে। কিন্তু সবার মধ্যে একটা প্রশ্নই ঘুরপাক খেতে থাকে এমনটা কী করে সম্ভব হল? ধাক্কা মারার পর এক ব্যক্তির দেহকে ৭০ কিলোমিটার টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যায় বাসটি।

এ ব্যাপারে চালক মহিউদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে পুলিশের কাছে তিনি দাবি করেন, এমন ঘটনা যে ঘটেছে সেটা টেরই পাননি। বাস যখন চানাপাটনার কাছে পৌঁছায় সে সময় বাসের গায়ে জোরে কিছু একটা আঘাত লাগার শব্দ পেয়েছিলেন তিনি। ভেবেছিলেন কোনো পাথরে ধাক্কা লেগেছে। বাসের রিয়ার-ভিউ মিরর দিয়ে বিষয়টি দেখার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু কিছু দেখতে পাননি। তাই আর বাস থামাননি। সোজা ডিপোতে এসেই বাসটি পার্ক করেন।

এদিকে কেএসআরটিসি-র এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানান, এ রকম ঘটনা আগে কখনও দেখেননি তিনি।

সূত্র: আনন্দবাজার



মন্তব্য চালু নেই