মেইন ম্যেনু

শুধু চা পান করেই ৩০ বছর পার ‘চা ওয়ালী চাচীর’

চা পান না করলে সকালটা যেন শুরুই হয় না। কিন্তু এই চায়ের ওপরে নির্ভর করেই তিন দশক বেঁচে থাকা যায়? শুনতে অবাক লাগলেও এভাবেই বেঁচে রয়েছেন ভারতের ছত্তীসগড়ের এক নারী। গত ৩০ বছর ধরে এই চা খেয়েই দিব্যি সুস্থ রয়েছেন রাজ্যের কোরিয়া জেলার পিল্লি দেবী।

মাত্র ১১ বছর বয়সে পিল্লি দেবী সব খাবার ছেড়ে দেন। সেই থেকে শুধুমাত্র চা পান করেই বেঁচে রয়েছেন তিনি। রাজ্যের বারাদিয়া গ্রামের এই ‘চায়ে ওয়ালী চাচী।’ কীভাবে বেঁচে রয়েছেন? সংবাদসংস্থা এনএনআইকে পিল্লি দেবীর বাবা রতি রাম জানিয়েছেন, ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ার সময়ই পিল্লি সিদ্ধান্ত নেয়; চা ছাড়া অন্য কোনো খাবার খাবে না।

ওই সময় একবার জেলার এক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় যোগ দিয়েছিল পিল্লি। সেখান থেকে ফিরে পানি-সহ অন্যান্য খাবার খাওয়া ছেড়ে দেয়।

পিল্লি দেবীর বাবা রতি রাম বলেন, ‘প্রথম দিকে পিল্লি বিস্কুট, রুটি ও দুধ খেত। কিন্তু কয়েক মাসের মধ্যে সে কালো চা খাওয়া শুরু করল। চিকৎসকরা জানিয়েছেন, শুধু চা খেলেও ওর কোনো শারীরিক সমস্যা বা রোগ নেই। তবে কীভাবে একজন শুধু চা খেয়ে বেঁচে থাকতে পারে তা কোনো চিকিৎসকই বলতে পারেননি।

এ ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন জেলা হাসপাতাল সুপার এস কে গুপ্তা। তিনি বলেন, এটি একটি অদ্ভূত ঘটনা। ৩০ বছর ধরে শুধুমাত্র চা খেয়ে কারো বেঁচে থাকা অসম্ভব। নবরাত্রিতে কেউ যখন টানা ৯ দিন অনশন করে তার সঙ্গে এর তুলনা চলে না। টানা ৩০ বছর! অসম্ভব। জিনিউজ।



মন্তব্য চালু নেই