মেইন ম্যেনু

শেখ হাসিনার অধীনেই নির্বাচন : আইনমন্ত্রী

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ‘সংবিধানে বলা আছে, সর্বশেষ নির্বাচিত সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে। সে অনুসারে আগামী নির্বাচন শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে হবে। তবে নির্বাচন করবে নির্বাচন কমিশন।’

শুক্রবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার দক্ষিণ ইউনিয়নের কালীনগর গ্রামে নতুন বিদ্যুৎ–সংযোগের উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত এক জনসভায় এসব কথা বলেন তিনি। উপজেলার দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদ ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এ জনসভার আয়োজন করে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ‘২০১৯ সালে যে নির্বাচন হবে, সেটা হবে সুষ্ঠু নির্বাচন। সংবিধান অনুসারে ওই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।’

যদি নির্বাচনের নামে কেউ সন্ত্রাস করে, তাহলে তাদেরকে দাঁতভাঙা জবাব দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক আগামী সংসদ নির্বাচনে কসবা-আখাউড়া আসন থেকেই প্রার্থী হবেন বলে ঘোষণা দেন।

জনসভায় সভাপতিত্ব করেন দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন। উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সৈয়দ তানজিল শাহের সভাপতিত্বে জনসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মো. আবদুল ওয়ারিদ, আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ শামছুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যক্ষ মো. জয়নাল আবেদীন, আইনমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব রাশেদুল কাইছার, আখাউড়া পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা, পল্লী বিদ্যুতের উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) আহমদ শাহ আল-জাবের।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ইতিমধ্যেই আখাউড়ায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন হয়েছে। নতুন করে বাড়ি নির্মাণ, নতুন মিটার লাগানোর কারণে এখনো নতুন সংযোগ দিতে হচ্ছে। আজ উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ১ হাজার ২৪০টি নতুন বিদ্যুৎ–সংযোগের উদ্বোধন করা হয়।

ওই অনুষ্ঠান শেষে মন্ত্রী পৌর এলাকার তারাগন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন।

পরে আখাউড়া উপজেলা পরিষদ মাঠে ফলদ বৃক্ষমেলার উদ্বোধন ও কৃষকদের মধ্যে বিনা মূল্যে সার ও বীজ বিতরণ করেন মন্ত্রী। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ শামছুজ্জামান।






মন্তব্য চালু নেই