মেইন ম্যেনু

শেষটা রাঙাতে আজ পাকিস্তানের মুখোমুখি বাংলাদেশ

ভারতের বিপক্ষে হেরে সেমির ট্রেন আগেই মিস করেছে টাইগাররা। তবে শুরুর মতো আসরের শেষটাও রাঙাতে চায় মাশরাফিরা।

শুক্রবার লর্ডসে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় আসরের ৪৩তম ও নিজেদের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে এশিয়ার দল দুটি।

৮ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট পাওয়া বাংলাদেশের এ ম্যাচে জয় পেলেও সেমিতে ওঠার কোন সুযোগ থাকছে না। তারপরও, জয় দিয়ে আসর শেষ করতে মাঠে নামবে সাকিব-মুশফিকরা।

অপরদিকে, ধুকে ধুকে এখনো সেমির যাত্রায় টিকে থাকা পাকিস্তান ৮ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার পাঁচে থেকে সেমির ট্রেনে উঠতে মাঠে নামবে তারা।

কিন্তু গত ম্যাচে স্বাগতিকদের কাছে কিউইদের যেভাবে লড়াই করার কথাছিল, তার কোনটাই প্রমাণ দিতে পারেননি উইলিয়ামসনরা।

ফলে, আসর থেকে ছিটকে পড়ার আশঙ্কায় থাকা স্বাগতিক ইংল্যান্ড কিউইদের উপর ভর করে আসরের তৃতীয় দল হিসেবে আগেই সেমির টিকিট নিশ্চিত করেছে তারা। অপেক্ষায় ফেলেছে নিউজিল্যান্ডকে।

আজকের ম্যাচে পাকিস্তানের প্রতিপক্ষ তাই শুধু বাংলাদেশ নয়, কিউইরাও সে দৌড়ে রয়েছে।

তাই সেমির টিকিট পেতে হলে অনেক বড় ধরনের জয় পেতে তাদের সরফরাজদের। দেখাতে হবে বিস্ময়কর কিছু। কিন্তু আদৌ কি সেটা সম্ভভ?

বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের কাছে বিশাল ব্যবধানে হারের পরও নিউজিল্যান্ডের পয়েন্ট এখন ১১। এছাড়া টানা তিনটি হারেও তাদের রানরেটও ভালো।

এদিকে পাকিস্তানের পয়েন্ট এখন ৯। যদি বাংলাদেশের সঙ্গে খেলায় পাকিস্তান জিতে যায় তবে তাদের পয়েন্ট নিউজিল্যান্ডের সমান হবে।

সেক্ষেত্রে পাকিস্তানের সঙ্গে নিউজিল্যান্ডের রানরেটের হিসাব হবে। আর ওই সমীকরণে এক প্রকার দুঃসাধ্য বা মিরাকল কিছু না ঘটলে নিউজিল্যান্ডই বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলবে।

পাকিস্তান যদি আগে ব্যাট করে তবে তাদের প্রথমে ৪০০ রান করতে হবে। আর বাংলাদেশকে ৮৪ রানে বেঁধে ফেলতে হবে।

এছাড়া পাকিস্তান যদি প্রথমে ব্যাট করে ৩৫০ রান করে তবে বাংলাদেশকে মাত্র ৩৮ রানে অলআউট অথবা আটকে রাখতে হবে। তাহলে নিউজিল্যান্ডকে ডিঙিয়ে পাকিস্তানই সেমিফাইনাল খেলবে।

আর বাংলাদেশ যদি প্রথমে ব্যাট করে তবে পাকিস্তানের সেমিফাইনালের কোনো সম্ভাবনাই থাকবে না।



মন্তব্য চালু নেই