মেইন ম্যেনু

শ্বশুরের জন্মদিনে তাসকিনপত্নীর আবেগঘন স্ট্যাটাস

শুরুর দিকে ততটা সক্রিয় না থাকলেও সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সরব হয়েছেন জাতীয় দলের অন্যতম পেস বলার তাসকিন আহমেদের স্ত্রী সৈয়দা রাবেয়া নাঈমা।

ইদানীং সাকিবের স্ত্রী কিংবা তামিমের স্ত্রীর মতোই নিজের নানা অনুভূতি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করছেন তিনি।

বিভিন্ন আয়োজনে অংশগ্রহণের ছবিও পোস্ট করেন তিনি।

এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) নিজের ব্যক্তিগত ফেসবুক প্রোফাইলে বেশ কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন নাঈমা।

সেখানে দেখা গেছে, শ্বশুর এম এ রশিদ মনুকে জন্মদিন উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। তার এই ছবিগুলো রীতিমতো ভাইরাল।

এর পেছনে অবশ্য যে কারণটি রয়েছে তাহলো, তাসকিনপত্নীর একটি স্ট্যাটাস। শ্বশুরের জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে আবেগময়ী এক স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

তার সেই স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হলো, ‘হ্যালো বন্ধুরা সবাই আমার বাবার (শ্বশুর আব্বা) জন্য অনেক অনেক দোয়া করবেন যেন উনি নেক হায়াত পান ইনশাআল্লাহ। শুভ জন্মদিন প্রিয় শ্বশুর আব্বা।’

তাসবকিনের বাবা প্রসঙ্গে নাঈমা আরও লেখেন, ‘আমার বিয়ের পর যার জন্য আমার জীবনটা এতো গোছালো তিনি হলেন আমার বাবা (শ্বশুর)। কারণ আমি নিজে অনেক অগোছালো একটা মেয়ে। আমার শ্বশুরকে আমি বাবা ডাকি কারণ তিনি আমাকে তার মেয়ে এবং বউমা হিসেবে বেশি আদর করে। তাসনুভা প্রিয়ন্তি এবং রোজা (তাসকিনের বোন) হিংসে করো না। কিন্তু এটা সত্যি। আমার বাবা এম এ রশিদ মনু শ্রেষ্ঠ শ্বশুর।’

শ্বশুরের প্রশংসা করে রাবেয়া আরও লিখেন, ‘তিনি আমার দেখা সবচেয়ে বেশি দায়িত্বশীল মানুষ। কারণ তিনি আমাদের অনেক ভালোবাসেন। আমরাও আপনাকে অনেক ভালোবাসি বাবা।’

তাসকিনপত্মীর এমন স্ট্যাটাসের প্রশংসা করেছেন নেটিজেনরা। এমন পারিবারিক বন্ধনের ভূয়সী প্রশংসা করে তাদের জন্য দোয়া চেয়েছেন তাসকিন ভক্তরা।

প্রসঙ্গত ২০১৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ শেষে দেশে ফিরেই দীর্ঘদিনের বান্ধবী নাঈমাকে বিয়ে করেন জাতীয় দলের তারকা পেসার তাসকিন।

তাশফিন আহমেদ রিহান নামে ফুটফুটে সন্তান রয়েছে এ দম্পতির ঘরে।



মন্তব্য চালু নেই