মেইন ম্যেনু

সাতক্ষীরায় সিঙাড়া ৫০ পয়সা, পরোটা এক টাকা!

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে যখন নাভিশ্বাস মানুষের তখন ব্যতিক্রমী এক দোকানির নাম মালেক বিশ্বাস। গত ৩০ বছরেরও অধিক সময় ধরে সিঙাড়া, পরোটা আর আলুর চপের দোকান চালাচ্ছেন তিনি। অবিশ্বাস্য হলেও সত্য তিনি শুরু থেকেই দোকানে পরোটা এক টাকা আর সিঙাড়া বিক্রি করছেন ৫০ পয়সায়। দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়লেও বাড়েনি মালেকের দোকানের সিঙাড়া আর পরোটার দাম।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ভোমরা ইউনিয়নের শ্রীরামপুর বাজারে প্রতিষ্ঠিত এ দোকানটি স্থানীয়দের কাছে ‘আট আনার দোকান’ নামে পরিচিত। এলাকার মানুষ দোকানি মালেক বিশ্বাকে একজন সৎ ও সহজ সরল লোক হিসেবেই জানেন। এই আট আনার দোকানে এক টাকার পরোটা, আলুর চপ আর ৫০ পয়সার সিঙাড়া খেতে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসেন অনেকেই। এলাকায় বেশ চাহিদাও রয়েছে এই দোকানের পণ্যের।

শ্রীরামপুর বাজারের ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা জানান, গত ৩০ বছরেরও অধিক সময় ধরে তিনি দোকানটি পরিচালনা করছেন। যেখানে ৫০ পয়সার সিঙাড়া এবং এক টাকার পরোটা ও আলুর চপ বিক্রি করা হয়। ক্রমান্বয়ে জিনিসপত্র ও খাদ্যদ্রব্যের দাম বাড়লেও বাড়েনি এই দোকানের পণ্যের দাম।

দোকানটি মুত্যুকাল পর্যন্ত চালিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়ে মালেক বিশ্বাস বলেন, মালপত্রের দাম যতই বাড়ুক আমার দোকানের সিঙাড়া, আলুর চপ আর পরোটার দাম বাড়বে না। সীমিত লাভ হয়। তবে তাতেই আমি খুশি। অনেক আগে এই দোকানের ব্যবসার লাভের টাকা দিয়ে কিছু জমি কিনেছিলাম, সেই জমির ইজারা আর ফসলে সংসার চলে। ব্যবসাটা ধরে রেখেছি ভক্তি আর শ্রদ্ধার কারণে।



মন্তব্য চালু নেই