মেইন ম্যেনু

প্রার্থিতা : ৫ জনের প্রত্যাহার, ৬ জনের বাতিল

সাতক্ষীরায় ৪টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন ২১ জন

হুসাইন বিন আফতাব : চূড়ান্ত মনোনয়ন ও প্রত্যাহারের পর সাতক্ষীরার চারটি সংসদীয় আসনে দুই জোটভুক্ত দলের ১২জন প্রার্থীসহ ২১জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন আওয়ামী লীগের তিনজন সংসদ সদস্য এবং ওয়ার্কার্স পার্টির একজন সংসদ সদস্য। এর মধ্যে মহাজোটভুক্ত চারটি দলে ৮জন প্রার্থী নির্বাচনের মাঠে থেকে গেছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের তিনজন ও ওয়ার্কার্স পার্টির একজন বর্তমান এমপি। এছাড়া মহাজোট ভুক্ত জাতীয় পার্টি তিনটি আসনে প্রার্থী দিয়েছেন। একটি আসনে প্রার্থী দিয়েছে বিকল্পধারা। অপরদিকে বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোট চারটি আসনে প্রত্যোকটিতে একজন করে প্রার্থী দিয়েছেন।

মহজোটভুক্ত দলগুলোর মধ্যে সাতক্ষীরা-১ আসনে দুইজন প্রার্থী, সাতক্ষীরা-২ আসনে দুই জন প্রার্থী ও সাতক্ষীরা-৪ আসনে তিনজন প্রার্থী রয়েছে। কেবল মাত্র সাতক্ষীরা-৩ আসনে ডা: আফম রুহুল হকের বিরুদ্ধে মহাজোটের অপর কোন প্রার্থী নেই।

এর আগে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেন সাতক্ষীরা-১ আসনের আওয়ামী লীগের প্রকৌশলী শেখ মুজিবর রহমান, জাসদের ওবায়েদুস সুলতান বাবলু। এছাড়া চূড়ান্ত মনোনয়ন পাওয়ার পর কয়েকজন প্রার্থী তাদের প্রার্থীতা হারান। সর্বশেষ দলের মনোনয়নপত্র না থাকায় বিএনপির শাহনারা পারভীনের মনোনয়পত্র বাতিল হয়েছে। এই আসনে বতমানে চুড়ান্ত প্রার্থী আছে ৬জন।

সাতক্ষীরা-১ (তালা কলারোয়া) আসনে প্রতিদ্বন্দ্বীতায় রয়েছেন ওয়ার্কার্স পার্টির বর্তমান সংসদ সদস্য মুস্তফা লুৎফুল¬াহ, বিএনপি দলীয় প্রার্থী ২৩ দলীয় জোটের হাবিবুল ইসলাম হাবিব, জাতীয় পার্টির সৈয়দ দীদার বখত্, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের এফএম আছাদুল হক, বাম গণতান্ত্রিক জোটের মো. আজিজুর রহমান ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আবদুর রশীদসহ ছয়জন প্রার্থী।

সাতক্ষীরা-২ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাহার করেছেন বিএনপির আব্দুল আলিম, জেএডির আফসার আলী, নাগরিক ঐক্যের রবিউল ইসলাম খান। দলের মনোনয়ন না থাকায় বাতিল হয়েছে- জাতীয় পার্টির শেখ আজহার হোসেন ও বিএনপির এইচএম রহমাতুল্লাহ পলাশ।

সাতক্ষীরা-২ (সদর) আসনে রয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, জাতীয় পার্টির শেখ মাতলুব হোসেন লিয়ন, ২৩ দলীয় জোটের আবদুল খালেক (জামাত), বাম গণতান্ত্রিক জোটের নিত্যানন্দ সরকার, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির জুলফিকার রহমান, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের মুফতি রবিউল ইসলামসহ ছয়জন।

সাতক্ষীরা-৩ (আশাশুনি দেবহাটা কালিগঞ্জ আংশিক) আসনে দলের চুড়ান্ত মনোনয়ন না থাকায় অটো বাতিল হয়েছে রবিউল বাশারের মনোনয়নপত্র।

এই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন বর্তমান সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের ডা. আ ফ ম রুহুল হক, ২৩ দলীয় জোটের ডা. মো. শহিদুল আলম (বিএনপি) ও ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের মো. ইসহাক আলি সরদারসহ তিনজন।

সাতক্ষীরা-৪ (শ্যামনগর ও কালিগঞ্জ আংশিক) আসনে দলের চুড়ান্ত মনোনয়ন না থাকায় অটো বাতিল হয়েছে বিএনপির কাজী আলাউদ্দীন ও মো. আব্দুস সালামের মনোনয়নপত্র।

এ আসনে চুড়ান্ত প্রার্থী হয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের এসএম জগলুল হায়দার, ২৩ দলীয় জোটের গাজি নজরুল ইসলাম (জামাত), জাতীয় পার্টি আবদুস সাত্তার মোড়ল, বিকল্পধারার এইচএম গোলাম রেজা, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের আবদুল করিম, স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন রবিউল ইসলাম জোয়ার্দারসহ ছয়জন।



মন্তব্য চালু নেই