মেইন ম্যেনু

সাবেক উপ-রাষ্ট্রপতির স্ত্রীর মাদ্রাসার পানির ট্যাংকে বিষ

ভারতের সাবেক উপ-রাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারির স্ত্রী সালমা আনসারি কর্তৃক পরিচালিত একটি মাদ্রাসার পানির ট্যাংকে ইদুরের বিষ মিশিয়েছে দুষ্কৃতিকারীরা।

সালমা আনসারির মাদ্রাসাটি আলিগড়ে অবস্থিত। সেখানে অন্তত চার হাজার শিক্ষার্থী পড়াশোনা করে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়, রাতে পানি আনতে গিয়ে এক ছাত্র দেখতে পায় দুজন লোক পানির ট্যাংকে কিছু একটা মেশাচ্ছেন। মাদ্রাসার সেই ছাত্রটি যখন তাদেরকে জিজ্ঞেস করে, তখন দুষ্কৃতিকারীরা ছাত্রটিকে ধাক্কা মেরে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। সেই ছাত্র তখন মাদ্রাসার ওয়ার্ডেনকে ঘটনাটি জানায়। ওয়ার্ডেন বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করেন। পানির ট্যাংকে বেশ কয়েকটি ইদুর মারার ট্যাবলেট পাওয়া যায়।

তদন্তে আরও জানা যায়, সেই দুজন দুষ্কৃতিকারীরা মাদ্রাসার ছাত্রটিকে হুমকি দিয়েছিল যেন বিষয়টি কাউকে না জানায়। তাদের কথা না শুনলে ক্ষতি হবে বলেও সতর্ক করেছিল তারা।

এদিকে সালমা আনসারির অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ ৩২৮ ও ৫০৬ ধারা মোতাবেক দুজন অজ্ঞাতনামা দুষ্কৃতিকারীর বিরুদ্ধে একটি মামলা নিয়েছে।

আল নূর চ্যারিটেবল সোসাইটির আওতায় মাদ্রাসাটি পরিচালিত হয়। এই দাতব্য সংস্থাটির সভাপতি হচ্ছেন সালমা আনসারি।

সাবেক উপ-রাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারির স্ত্রী সালমা আনসারি উদ্বেগ প্রকাশ করেন যদি ওই সময়ে সেই মাদ্রাসা ছাত্রটি না আসতো তাহলে কী ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি হতো!






মন্তব্য চালু নেই