মেইন ম্যেনু

সুনির্দিষ্ট অভিযোগেই নিখোঁজ তিনজন গ্রেপ্তার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তাসহ নিখোঁজ হওয়া তিনজনকে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে বলেও জানান মন্ত্রী।

সোমবার সকালে রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এই কথা জানান। এর মন্ত্রী রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয়ে সরস্বতী পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন।

গতকাল রবিবার রাতে শিক্ষামন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা (পিও) মোতালেব হোসেনসহ তিন দিনে নিখোঁজ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ। বাকি দুইজন হলেন লেকহেড গ্রামার স্কুলের মালিক খালেদ হাসান মতিন এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের গ্রহণ ও বিতরণ শাখার উচ্চমান সহকারী নাসির উদ্দিন।

ডিবি সূত্র জানায়, রাত সাড়ে আটটায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের রিসিভ ও ডেসপাস শাখার উচ্চমান সহকারী মো. নাসিরুদ্দিনকে এক লাখ ৩০ হাজার টাকাসহ গুলশান এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরবর্তী সময়ে তার সঙ্গে যোগাযোগের সূত্র ধরে মোতালেব হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়। অপর এক অভিযানে লেকহেড স্কুলের মো. খালেদ হাসান মতিনকে গুলশান এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তাদের গ্রেপ্তার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘গোয়েন্দারা যখন কাউকে গ্রেপ্তার করে, তখন সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেপ্তার করে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে বলেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’

মন্ত্রী জানান, তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এর ভিত্তিতেই তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হবে।

সম্প্রতি এক নারীকে অস্ত্রের মুখে বিয়ে করার অভিযোগ উঠে ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে। এ ব্যাপারে এক প্রশ্নের উত্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিষয়টির তদন্ত চলছে। প্রতিবেদন পেলে আমরা পরবর্তী ব্যবস্থা নেব।



মন্তব্য চালু নেই