মেইন ম্যেনু

সেই বিএসএফ জওয়ানের ছেলের ‘আত্মহত্যা’

সৈন্যদের দেয়া খাবারের সমালোচনা করে ভিডিও পোস্ট করে চাকরি হারিয়েছিলেন ভারতের সীমান্ত বাহিনী বর্ডার গার্ড ফোর্সের (বিএসএফ) কনস্টেবল।

এবার হরিয়ানায় নিজের বাড়িতেই মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে তার ছেলেকে।

শুক্রবার ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, বরখাস্ত বিএসএফ সৈন্য তেজ বাহাদুর যাদবের ২২ বছর বয়সী ছেলে রোহিতের দেহ একটি বন্ধ ঘরের মধ্যে পাওয়া যায়। এ সময় তার হাতে একটি পিস্তল ধরা ছিল।

পরিবারের লোকজন পুলিশকে রোহিতের আত্মহত্যার বিষয়ে অবহিত করে।

‘আমাদের জানানো হয়, রোহিত আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি ঘরটা ভেতর থেকে বন্ধ আছে। দেহ পড়ে আছে বিছানায়। হাতে একটা পিস্তল ধরা,’ বলেন এক পুলিশ কর্মকর্তা।

তেজ বাহাদুর ওই সময়ে উত্তর প্রদেশের কুম্ভ মেলায় ছিলেন। ‘আমরা তাকে খবর দিয়েছি,’ জানান ওই কর্মকর্তা।

ফ্রন্টলাইনের সৈন্যদের দেয়া ‘পাতলা ডাল এবং পোড়া চাপাটি’র সমালোচনা করে ভিডিও পোস্ট করায় যাদবের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে ২০১৭ সালে আদালত গঠন করে বিএসএফ।

তার এই ভিডিও এতটাই ভাইরাল হয়ে পড়ে যে, দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ এবং প্রধানমন্ত্রীর অফিস এ সম্পর্কিত প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেয়।

বিতর্ক তুঙ্গে ওঠায় যাদবকে প্রথমে লাইন অফ কন্ট্রোল থেকে সরিয়ে নেয়া হয় এবং পরে মিথ্যা অভিযোগের দায়ে চাকরিচ্যুত করা হয়।

তার সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে দাবি করে পরে আবারও ভিডিও পোস্ট করেন যাদব। তার অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্ত করা হয়নি বলে দাবি করেন।

গত বছরের এপ্রিলে বিএসএফ একটি রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশন সৈন্যদের দেয়া খাবারের মূল্যায়নের নির্দেশ দিয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই