মেইন ম্যেনু

হিজাব পরে মেয়েরা পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে পারবে, তবে…

আসন্ন সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস প্রথমবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা কেন্দ্রে মেয়ে পরীক্ষার্থীরা হিজাব পরে আসতে পারবেন। তবে পরীক্ষার হলে প্রবেশের আগে তাদের হিজাব খুলে দেহ তল্লাশি করা হবে।

হিজাবধারীদের কেউ কানে কিংবা দেহের অন্য কোথাও ক্ষুদ্রাকৃতির ইলেকট্রনিক ডিভাইস লুকিয়ে এনেছেন কি না তা পরীক্ষা করে দেখতেই স্বল্প সময়ের জন্য তাদের হিজাব খুলতে হবে। স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

হিজাব পরে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশে নিষেধ করা হয়েছে কি না এ বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (চিকিৎসা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. আবদুর রশীদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি তা নয়। হিজাব পরে পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে কোনো বাধা নেই। তবে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের আগে দেহ তল্লাশির সময় স্বল্প সময়ের জন্য হিজাব খুলতে হবে।

অধ্যাপক রশীদ বলেন, বর্তমানে বাজারে ক্ষুদ্রাকৃতির নানা ডিভাইস পাওয়ার কথা শোনা যায়। ওভারসাইট কমিটির পরামর্শে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, সর্বোচ্চ সতর্কতা ও কঠোর গোপনীয়তার মাধ্যমে প্রশ্নপত্র প্রণয়নসহ পরীক্ষার সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। গত বছরের মতো এবারও পরীক্ষার আগের দিন সকালে পুলিশি প্রহরায় ম্যাজিস্ট্রেট ও সংশ্লিষ্ট মেডিকেল কলেজের দায়িত্বশীলদের কাছে তালাবদ্ধ প্রশ্নপত্র হস্তান্তর করা হবে।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে রওনা হওয়ার পর থেকে ঢাকা ও ঢাকার বাইরের পরীক্ষা কেন্দ্রে যাওয়ার পথে প্রতিটি মুহূর্ত সিসিটিভির মাধ্যমে মনিটরিং করা হবে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অধীনে কেন্দ্রীয়ভাবে ৬ অক্টোবর (শুক্রবার) রাজধানীসহ সারাদেশে সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত ১০০ নম্বরের এমসিকিউ প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ বছর এই পরীক্ষায় মোট ৮২ হাজার ৮৫৬ জন ভর্তিচ্ছু অংশগ্রহণ করবেন।

এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর মহাখালীতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে স্বাস্থ্য বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তারা ওভারসাইট কমিটির সদস্যদের সঙ্গে ভর্তি পরীক্ষার সর্বশেষ প্রস্তুতি নিয়ে বৈঠক করেন। পরীক্ষায় নকল ও যেকোনো ধরনের অনিয়ম রোধে বিভিন্ন পরামর্শ দেন তারা। সার্বিক প্রস্তুতিতে তারা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

ওভারসাইট কমিটির সদস্যদের মধ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ডা. মাহমুদ হাসান, বিএমএ’র সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই