মেইন ম্যেনু

১০০ বছরেও ফিট বাঙালি বৃদ্ধের রহস্য!

মৃত্যু একটি অনিবার্য সত্য। জন্মের পরই মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত থাকতে হয় প্রাণিকূলকে। তবে দীর্ঘ জীবনও পেয়ে থাকেন কেউ কেউ। তেমনি একজন শতায়ুবর্ষীর সন্ধান পাওয়া গেছে। ১০০ বছরেও তিনি ফিট রয়েছেন। জানা গেল সেই রহস্য।

গণেশচন্দ্র ঘোষের বয়স ১০০ বছর পার হয়েছে। তাই পরিবারের পক্ষ থেকে শতবর্ষ উদযাপন করা হয়েছে। ওইদিন মোমবাতি জ্বেলে, কেক কেটে, পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে আনন্দ করেছেন তিনি। ফোকলা দাতে নিমন্ত্রিতদের সঙ্গে হাসি-ঠাট্টাও করেছেন।

ভারতের জলপাইগুড়ির বাসিন্দা গণেশচন্দ্র ঘোষ পেশায় ছিলেন পুরোহিত। গত ১১ সেপ্টেম্বর ১০০ বছর ১ দিন বয়সী গণেশ নিজের জীবনকাহিনি বলেছেন। তিনি বলেন, ‘সে সময়ের পূর্ববঙ্গে (বাংলাদেশ) তখন মাত্র চার আনায় এক হালি (এক কেজি) ইলিশ মাছ কেনা যেত! আমি এক কেজি ওজনের ইলিশ মাছ অনায়াসে খেয়ে ফেলতে পারতাম।’

শত বছরে এসে তার প্রতিদিনের খাবার ভিন্নরূপ ধারণ করেছে। এখন প্রতিদিন সকালে দুধ, কর্নফ্লেক্স বা মুড়ি খান। তারপর খান মুসম্বি লেবুর রস। আর দুপুরে ও রাতে ডাল, মাছ, ভাত ইত্যাদি খেতেও ভালোবাসেন।

শতবর্ষী বাবার জন্মদিন পালন উপলক্ষে বড় ছেলে বিমলচন্দ্র বলেন, ‘বাবার এত বছর বেঁচে থাকার পেছনে দুই বেলা সময় করে হাঁটাহাঁটি সহায়ক হিসেবে কাজ করছে। তার শতবর্ষকে চিরস্মরণীয় করে রাখতে শতবর্ষ উদযাপনের ব্যবস্থা করেছি। আশা করছি তিনি আরও অনেক বছর বেঁচে থাকবেন।’



মন্তব্য চালু নেই