মেইন ম্যেনু

১১ বছরের ক্যারিয়ারে এটাই প্রথম : বাঁধন

‘আমি ফিরতে চেয়েছিলাম ভালো একটি কাজ দিয়ে। সৃষ্টিকর্তা যে এভাবে আমাকে সুযোগ করে দেবেন তা কল্পনাও করতে পারিনি।

আমার ১১ বছরেরর ক্যারিয়ারে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক কোনো কাজ করা হয়নি। প্রথমবারের মতো দারুণ একটি কাজ করেছি। এতোদিন মিডিয়া আমাকে দিয়েছে, এখন আমি মিডিয়াকে কিছু দিতে চাই। ‘

সম্প্রতি বেসরকারি টেলিভিশন দীপ্তটিভির ৬ পর্বের বিশেষ ধারাবাহিক বিজয়ের গল্প ‘অপ্রকাশ’ এ অভিনয় করেছেন বাঁধন। অভিনয় প্রসঙ্গে এমন অভিব্যক্তিই প্রকাশ করলেন এই লাক্স তারকা। ধারাবাহিকটি পরিচালনা করেছেন গোলাম সোহরাব দোদুল।

এই নাটকে বাঁধনের চরিত্রের নাম ‘উম্মে কুলসুম কলি। ‘ কলেজছাত্রী। যার বিয়ে ঠিক হয়েছে এমন একজনের সাথে যার সাথে কিনা কলি’র মানসিক দূরত্ব আসমান জমিন।

কলি মা-মাতৃভূমির প্রতি অগাধ ভালোবাসা লালন করেন। অন্যদিকে তার হতে যাওয়া জীবনসঙ্গী পাকিস্তানের সমর্থক। যে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন রাজাকার হিসবে নিজের উপস্থিতি জানান দেয়।

বাঁধন বলেন, ‘একটা বিপর্যয়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছিলাম। একটা ভালো কাজের মধ্য দিয়ে ফিরতে চেয়েছিলামম। আমার লাক এতো ফেভার করেছে যে নিজেকে ভাগ্যবতী মনে করছি। তাছাড়া নির্মাতা সোহরাব হোসেন দোদুলের সাথে আমার ক্যারিয়ারের প্রথম কাজ। তাঁর সাথে কাজ করে অভিজ্ঞতা সঞ্চার করলাম। এতো সুনিপুণভাবে তিনি কাজ আদায় করে নিতে পারেন, কী বলবো…’

নাটকের গল্প প্রসঙ্গে বাঁধন বলেন, ‘আমি আমার লাইফের সর্বোচ্চটা দিয়ে এই ধারাবাহিকে কাজ করেছি। দর্শকেরাই দেখে বাকিটা বিবেচনা করবে। পূবালের অনেক ভেতরের জঙ্গলের একটা সিকোয়েন্স করতে আমাদের সারাটা দিন পার হয়ে যায়। গভীর জঙ্গল সেখানে আমাকে পাকিস্তানি সৈন্যরা ধাওয়া করছে। আমিও দৌঁড়াচ্ছি কোনোকিছু না ভেবেই। এভাবে কতবার যে পড়ে গেছি। ‘

বাঁধন যুক্ত করেন, অসাধারণ একটি গল্প এটি। এখানে আমি আমার হবু জীবন সঙ্গীর বিপরীতে অবস্থা নেই। সে রাজাকার কিন্তু আমি মুক্তিকামী। স্বাধীন ভূ খণ্ডের জন্য স্বাধীনতার জন্য যারা লড়ে যাচ্ছেন তাঁদের তথ্য সরবরাহ করি। অভিনয় করতে গিয়ে সে সময়ের কলেজ ছাত্রী কলির জীবনের সঙ্গে মিশে গিয়েছিলাম। জঙ্গলের কাঁটা লেগে তিন চার জায়গায় কেটে গেছে। গল্পে সেনাদের হাতেই আমার মৃত্যু হয়। ফাইনালি চমৎকার ভাবে শুটিং সম্পন্ন হয়েছে। ‘

বাঁধন এমন একটি কাজে তাঁকে নির্বাচিত করায় দীপ্তটিভি কর্তৃপক্ষ ও নির্মাতা দোদুলের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এই নাটোকে আরও অভিনয় করেছেন, ইন্তেখাব দিনার, সুমাইয়া শিমুসহ অনেকেই।

আগামী ১৬ থেকে ২১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা ও রাত ৯টা ৩০মিনিটে নাটকটি প্রচারিত হবে বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন দীপ্ত টিভিতে।



মন্তব্য চালু নেই