মেইন ম্যেনু

১৭০০ কি.মি দূরের লক্ষ্যবস্তুকে আঘাত হানতে সক্ষম এই মিসাইল

নিজেদের নতুন মিসাইল পরীক্ষা করল ইরান। ‘ইমাদ’ বা ‘স্তম্ভ’ নামের এই ব্লাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র যেকোনও লক্ষ্যবস্তুকে লক্ষ্য করে আঘাত হানতে সক্ষম।

ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জানিয়েছেন, নতুন এই ব্লাস্টিক মিসাইল প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয়ের আওতাধীন অ্যারোস্পেস ইন্ডাট্রিজ’এর বিজ্ঞানীরা তৈরি করেছেন।

মিসাইল রিসার্চার অ্যান্টনি কর্ডসম্যান জানিয়েছেন, এই ক্ষেপণাস্ত্রের বিশেষত্বই হল যেকোনও লক্ষ্য বস্তুকে অব্যর্থ নিশানা বানানো। এক একটি মিসাইলের রেঞ্জ ১৭০০ কিলোমিটার। লক্ষ্যবস্তুর ৫০০ মিটারের মধ্যেই নির্ভুলভাবে হামলা চালানোর ক্ষমতা।

সঙ্গে রয়েছে ৭৫০ কিলোগ্রামের ক্ষেপণাস্ত্র বহন করার ক্ষমতা। তবে এটাই প্রথম নয়, এর আগে ইরানের হাতে ছিল সাহাব নামের তিনটি মিসাইল। ২০০০ মিটারের মধ্যে নির্ভুল হামলা চালাতে সক্ষম এই মিসাইলগুলি কাজ করছে।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই ইরানের সঙ্গে আমেরিকা সহ বিশ্বের ছয়টি পরমাণু শক্তিধর দেশের পরমাণু চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

ওই চুক্তি অনুযায়ী, ইরান নিজের পরমাণু কেন্দ্রগুলিতে পরমাণু শক্তির ব্যবহার কমাবে এবং জাতিসংঘের প্রতিনিধিরা ইরানের পরমাণু কেন্দ্র গুলিতে পরিদর্শন করতে পারবে। বদলে ইরানের উপর থেকে সমস্ত আর্থিক নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হবে। এবার সেই ইরানই পরমাণু শক্তির বদলে নিত্যনতুন মিসাইল তৈরি শুরু করেছে।






মন্তব্য চালু নেই