মেইন ম্যেনু

৬০ লক্ষ টাকার ভাড়া বাকী, মল্লিকাকে বাড়ি ছাড়ার নির্দেশ

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ‘মার্ডার’ গার্ল মল্লিকা শেরাওয়াত। হলিউডেও রেখেছেন তিনি অভিনয়ের স্বাক্ষর। সিনেমার হাত ধরে ঘুরে বেড়িয়েছেন দেশ বিদেশ। বর্তমানে তিনি ফ্রান্সের প্যারিসের বাসিন্দা।

কিন্তু বেশ লম্বা সময় তিনি সিনেমার বাইরে। কিছু টেলিভিশন শো ছাড়া তার মুখ সেভাবে আর দেখা যায় না। হাতে কাজ নেই একদমই। তারই প্রভাব পড়লো এবার এই অভিনেত্রীর জীবনে। অবস্থা এতটাই শোচনীয় যে বাড়ি ভাড়াটাও দিতে পারছেন না। এজন্য তাকে বাড়ি ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে ফ্রান্সের এক আদালত। ৩১ মার্চ পর্যন্ত সময় রয়েছে মল্লিকার কাছে। তার মধ্যে ভাড়া দিয়ে দিলে ভাল নতুবা বাড়ি খালি করা ছাড়া আর কোনো উপায় থাকবে না অভিনেত্রীর।

বলিউড থেকে বিদায় নিয়ে মল্লিকা বেশ কিছু বছর ধরে প্যারিসে রয়েছেন। বিয়ে করেছেন এক ফরাসী নাগরিককে। বিয়ের পর প্যারিসের এক অভিজাত এলাকায় বিলাসবহুল ফ্ল্যাট ভাড়া নেন দু’জনে। বাড়ির মালিকের অভিযোগ, একবার ছাড়া আর বাড়ি ভাড়াই দেননি তারা। সেই ভাড়া বাড়তে বাড়তে এখন ৭৮, ৭৮৭ ইউরো হয়ে গিয়েছে। যা ভারতীয় মুদ্রায় ৬০ লক্ষ টাকা!

জানা গেছে, গত বছরের জানুয়ারি থেকে স্বামীকে নিয়ে প্যারিসের ওই ফ্ল্যাটটিতে ভাড়া থাকতে শুরু করেন মল্লিকা। ফ্ল্যাটের ভাড়া ৬,০৫৪ ইউরো। ভারতীয় মুদ্রায় ৪ লক্ষ টাকা। কিন্তু একবার ২৭১৫ ইউরো দেওয়ার পর আর কোনো টাকাই দেননি মল্লিকা।

তবে মল্লিকা এই খবরকে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি মজা করে জানান, তার প্যারিসে কোনো ফ্ল্যাট নেই। যদি কেউ ফ্ল্যাট তাকে উপহার দিয়ে থাকে তবে তার নাম ঠিকানা যেন তাকে দেওয়া হয়।






মন্তব্য চালু নেই