মেইন ম্যেনু

চীনের মহাপ্রাচীর

রীনা তুলি, বেইজিং (চীন) থেকে ফিরে : পাহাড়ঘেরা অপরূপ সবুজ আরণ্যক চীনের প্রাচীর (গ্রেটওয়াল অব চায়না)। জনবহুল দেশ চীনের বেইজিংয়ে অবস্থিত এ প্রাচীর পৃথিবীর সপ্তাশ্চর্যগুলোর মধ্যে একটি।

পৃথিবীর এই আশ্চর্য ও দীর্ঘতম প্রাচীরের দৈর্ঘ্য প্রায় ২৬৯৫ কিলোমিটার এবং উচ্চতা ৪.৫৭ থেকে ৯.২ মিটার বা প্রায় ১৫ থেকে ৩০ ফুট। চওড়ায় প্রায় ৯.৭৫ মিটার বা ৩২ ফুট।

কথিত আছে- চীনের প্রাচীরের ওপর দিয়ে একসঙ্গে ১২ জোড়া ঘোড়া চলতে পারে।

সপ্তাশ্চর্যের অন্যতম চীনের মহাপ্রাচীর দেখতে ছুটে আসেন লাখ লাখ পর্যটক। খ্রিস্টপূর্ব ৫ম শতক থেকে ১৬০০ শতক পর্যন্ত চীনের উত্তর সীমান্ত রক্ষায় এটি তৈরি করা হয়। সেই সময় এ রকম অনেক প্রাচীর তৈরি করা হয়েছিল। তবে ২২০ খ্রিস্টপূর্ব থেকে ২০০ খ্রিস্টপূর্বের মধ্যবর্তী সময়ে চীনের প্রথম সম্রাট কিন শি হুয়াঙের অধীনে নির্মিত প্রাচীরটিই সবচেয়ে বিখ্যাত।





মন্তব্য চালু নেই