প্রধান ম্যেনু

অস্ট্রেলিয়ার নির্বাচনে আবারও ক্ষমতাসীন দলের জয়

অস্ট্রেলিয়ার ফেডারেল নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের নেতৃত্বাধীন মধ্য ডানপন্থী জোট জয় পেয়েছে। স্থানীয় সময় শনিবার সকাল থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৬টায় ভোট শেষ হয়। ৭০ শতাংশেরও বেশি ভোট গণনার পর দেখা যায় ক্ষমতাসীন জোট জয় পেয়েছে। সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য ৭৬টি আসন প্রয়োজন হলেও তারা ৭৪টি আসন পেতে যাচ্ছে। খবর বিবিসির।

অন্যদিকে প্রতিদ্বন্দ্বী লেবার পার্টি ৬৬ আসন পেতে যাচ্ছে। কয়েক ঘণ্টা পর চূড়ান্ত ফল জানা যাবে।

অস্ট্রেলিয়ায় প্রতি তিন বছর পর পর জাতীয় নির্বাচন হয়। কিন্তু ২০০৭ সালের পর এখন পর্যন্ত কোনো প্রধানমন্ত্রী তার মেয়াদ শেষ করতে পারেননি।
এর আগে নির্বাচনী জরিপগুলোতে লেবার পার্টি এগিয়ে ছিল এবং তারাই ক্ষমতায় আসছে বলে আভাস দিয়েছিল গণমাধ্যম। কিন্তু সবাইকে অবাক করে মরিসনের লিবারেল-ন্যাশনাল জোট ক্ষমতা ধরে রাখল।

ক্ষমতাসীন জোটকে পুনর্নির্বাচিত করায় ভোটারদের ধন্যবাদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মরিসন।

প্রকাশিত আংশিক ফলে লিবারেল-ন্যাশনাল জোট এগিয়ে থাকার খবর আসার পর সমর্থকদের মরিসন বলেছেন, তিনি ‘সবসময় মিরাকলে বিশ্বাস করেন’।

বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা বিল শর্টেন পরাজয় মেনে নিয়ে দলীয় প্রধানের পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন।

বুথ ফেরত জরিপগুলোতেও ছয় বছর পর অল্প ব্যবধানে লেবার দল জয় পেতে যাচ্ছে বলে আভাস দেয়া হয়েছিল, কিন্তু তা হয়নি।

অস্ট্রেলিয়ায় ভোট দেয়া বাধ্যতামূলক এবং এ বছর রেকর্ড এক কোটি ৬৪ লাখ ভোটার ভোট দিয়েছেন। ভোট না দিলে ভোটারকে ২০ অস্ট্রেলীয় ডলার জরিমানা গুনতে হয়।



মন্তব্য চালু নেই