আক্রান্তের সংখ্যায় চীনকে টপকে গেল বাংলাদেশ

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৮৫৬ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৪ হাজার ৩৮৯ জনে। এতে আক্রান্তের নিরিখে চীনকে ছাড়িয়ে গেল বাংলাদেশ। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৮৩ হাজার ৮৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় কেড়ে নিয়েছে ৪৪ প্রাণ। মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১৩৯ জনে।

অন্যদিকে সারাবিশ্বে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৩৬ হাজার ৬৯৪ জন।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, শনিবার সকাল আটটা পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে ৪ লাখ ২৮ হাজার ২৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৭ লাখ ৩২ হাজার ৪৮৫ জন। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩৯ লাখ ২৫ হাজার ৩৫৪ জন।

চীনের উহান থেকে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হয়। এরপর ইউরোপে তাণ্ডব চালায় প্রাণঘাতী এ ভাইরাস। তবে এখন ভাইরাসটির সংক্রমণের কেন্দ্র দক্ষিণ এশিয়া ও আমেরিকা। যদিও আক্রান্ত ও মৃত্যুতে দীর্ঘদিন ধরে শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

করোনায় বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ২১ লাখ ১৬ হাজার ৯২২। দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ১৬ হাজার ৮২৫ জনের।

আক্রান্ত ও মৃতের তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের পরই রয়েছে ব্রাজিল। সেখানে এখন মোট আক্রান্ত ৮ লাখ ২৯ হাজার ৯০২। দেশটিতে করোনায় মৃত্যু ৪২ হাজারের কাছাকাছি।

করোনা রোগী শনাক্তের দিক দিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে রাশিয়া। দেশটিতে ৫ লাখ ১১ হাজার ৪২৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৭১৫ জনের।

যুক্তরাজ্যকে টপকে চার নম্বরে চলে আসা ভারতে করোনা রোগীর সংখ্যা দিনে দিনে বেড়েই চলেছে। এখন পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৯ হাজার ৬০৩ জন। মারা গেছেন ৮ হাজার ৮৯০ জন।

যুক্তরাজ্যজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত মানুষের সংখ্যা প্রতিনিয়ত কমছে। দেশটিতে মোট ২ লাখ ৯২ হাজার ৯৫০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। করোনায় মোট মৃত হয়েছে ৪১ হাজার ৪৮১ জনের।



মন্তব্য চালু নেই