আঠারোর্ধ্ব শিক্ষার্থীরা পাবে করোনার টিকা : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনতে বয়সসীমা ১৮ তে নামিয়ে আনা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, ১৮ বছরের বেশি বয়স্ক শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা দেওয়া হবে। বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) রাজধানীর মহাখালীতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে এক অনুষ্ঠানে জাহিদ মালেক এ মন্তব্য করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নতুন স্থাপিত আইসিইউ ইউনিট ও বেড উদ্বোধনে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়। স্বাস্থ্যমন্ত্রী ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে যুক্ত হন।

দেশের সরকারি হাসপাতালগুলোর ৭৫ শতাংশ বেড ও ৭৫ শতাংশ আইসিইউতে করোনা রোগী ভর্তি আছে। এমন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আনতে পারলে সামাজিক ও অর্থনৈতিক বিপর্যয় হবে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় জেলাপর্যায়ে আরও ৫০০০ বেডের আইসোলেশন সেন্টার করা হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আমরা ইতোমধ্যে লকডাউনের সুফল কিছুটা পেতে শুরু করেছি। রাজশাহী, খুলনা, দিনাজপুরে রোগীর চাপ কমছে।

তিনি বলেন, দেশে এখনও ৪৫ লাখ ভ্যাকসিন মজুদ আছে। আরও ১ কোটি চায়নায় অর্ডার দেওয়া আছে। প্রতিমাসে পালাক্রমে আসবে। আগামী মাসে ফাইজার ও অ্যাস্ট্রেজেনেকার ভ্যাকসিনও আসবে।

বর্তমানে একসঙ্গে প্রায় তিন কোটি ডোজ ভ্যাকসিন সংরক্ষণের সক্ষমতা সরকারের আছে জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, সংরক্ষণ সক্ষমতা বাড়াতে আরও কিছু ফ্রিজার কেনার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

তিনি বলেন, সরকার চিকিৎসা সেবা মানুষের দৌঁড়গোড়ায় পৌঁছে দিতে আরও চার হাজার নার্স ও দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়া হবে। এ বিষয়ে অনুমোদন হয়ে গেছে।

প্রসঙ্গত, দেশে করোনাভাইরাসর সংক্রমণ দিন দিন বেড়েই চলেছে। পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে বুধবার (১৪ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে আরও ২১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে দেশে মোট মৃত্যুর মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ৫২ জনে। একইসময়ে নতুন করে আরও ১২ হাজার ৩৮৩ জন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ৫৯ হাজার ৫৩৮ জনে। এই ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪২ হাজার ৪৯০টি। শনাক্তের হার ২৯.১৪ শতাংশ। এছাড়া এ পর্যন্ত দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ১.৬১ শতাংশ।



মন্তব্য চালু নেই