শিরোনাম:

আফগানিস্তানে মাদ্রাসায় বিস্ফোরণ, নিহত অন্তত ১৭

আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলে একটি মাদ্রাসার ভেতরে বিস্ফোরণে অন্তত ১৭ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো বহু মানুষ। দেশটির তালেবান সরকারের কর্মকর্তারা এতথ্য জানিয়েছেন।

সামানগান প্রদেশের রাজধানী আয়বাকের একটি মাদ্রাসায় বহু শিক্ষার্থী দুপুরে জোহরের নামাজ পড়ার জন্য জড়ো হলে এই বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

বলা হচ্ছে নামাজ শেষে লোকজন যখন বের হয়ে যাচ্ছিল তখনই এই বিস্ফোরণ ঘটেছে। নিহতদের বেশিরভাগই শিশু।

প্রাদেশিক মুখপাত্র এমদাদুল্লাহ মুহাজির বলেছেন, পৌনে একটার দিকে শহরের কেন্দ্রে অবস্থিত জাহদিয়া মাদ্রাসায় এই বিস্ফোরণ ঘটে। এই মাদ্রাসায় বহু শিক্ষার্থী পড়ালেখা করে, বলেন তিনি।

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র বলেছেন, হামলায় আরো বহু মানুষ আহত হয়েছে। তাদের অনেকের অবস্থা গুরুতর।

রাজধানী কাবুল থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে আয়বাকের স্থানীয় একটি হাসপাতালের একজন চিকিৎসক ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন আহত অন্তত ২৫ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।তিনি জানিয়েছেন, হতাহতদের অধিকাংশই এই স্কুলের শিক্ষার্থী।

আয়বাকে আগেও আরো কয়েকটি হামলার ঘটনা ঘটেছে। ২০১২ সালে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে চালানো আত্মঘাতী হামলায় অন্তত ১৭ জন নিহত হয়।

অনলাইনে পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে বহু শিশুর দেহ নামাজের ঘরে পড়ে আছে। এই বিস্ফোরণের জন্য কে বা কারা দায়ী তা এখনও পরিষ্কার নয়।

গত বছরের অগাস্ট মাসে তালেবানের ক্ষমতা দখলের পর দেশটির বিভিন্ন স্থানে বেসামরিক লোকজনকে লক্ষ্য করে বহু হামলার ঘটনা ঘটেছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ইসলামিক স্টেট এসব হামলা চালানোর দাবী করেছে।

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র আব্দুল নাফি টাক্কুর বলেছেন তালেবানের নিরাপত্তা বাহিনী এই হামলার ঘটনায় তদন্ত করছে।

তিনি বলেন, ‘যারা এর সাথে জড়িত তাদেরকে খুঁজে বের করে তাদের এই কাজের জন্য শাস্তি দেওয়া হবে।’

সূত্র: বিবিসি