মেইন ম্যেনু

আবারও পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে শিশু শ্রমিক হত্যা

বগুড়ায় পাশবিক নির্যাতনে মৃত্যু হয়েছে আলাল (১২) নামে এক শিশু শ্রমিকের। পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে তাকে হত্যা করেছে এক সহকর্মী। শুক্রবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে কাহালু উপজেলার আফরিন জুট মিলে এমন ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ জানিয়েছে নিহত আলাল উপজেলার মালঞ্চা ইউনিয়নের ঢাকুনতা গ্রামের মোতাহার আলীর ছেলে। সে আফরিন জুট মিলে পরিচ্ছন্নতাকর্মীর কাজ করতো। এ ঘটনায় যতীন (১৭) নামে তার এক সহকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে শাজাহানপুর উপজেলার খরনা গ্রামের সন্তোষের ছেলে।

কাহালু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়া লতিফুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘ওই জুট মিলে আলাল ও যতীন পরিচ্ছনতা কর্মী হিসেবে কাজ করছিল। সেখানে মেশিন পরিষ্কারের জন্য হাওয়ার মেশিন ছিল।

তিনি আরও জানান, শুক্রবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে যতীন সেই মেশিন দিয়ে আলালের পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে দেয়। এতে আলাল গুরুতর অসুস্থ হলে তাকে বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে (শজিমকে) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে বেলা ৩টার দিকে মারা যায় আলাল।

শজিমক হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান, পায়ুপথে বাতাস ঢোকানোর কারণে পেটের নাড়িভুঁড়ি ছিঁড়ে যাওয়ায় রক্ত সঞ্চালন বন্ধ হয়ে শিশুটি মারা গেছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার পর মৃত্যুর সুনির্দিষ্ট কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে।



মন্তব্য চালু নেই