মেইন ম্যেনু

আল্লাহর ৯৯ নাম খচিত দৃষ্টিনন্দন ভাস্কর্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কান্দাইল বাসস্ট্যান্ড

এম, শরীফ হোসেন : গত ৩ অক্টোবর বুধবার নরসিংদী জেলার মাধবদী থানাধীন কান্দাইল বাসষ্ট্যান্ডে উদ্ভোধন হয়ে গেল আল্লাহ চত্বর।নরসিংদী-২ (পলাশ) এর এম,পি কামরুল আশরাফ পোটন এ চত্বরটির উদ্ভোধন করেন।এ সময় উপস্থিত ছিলেন,আমদিয়া ইউ পি চেয়ারম্যান নাজিমউদ্দিন ভূইয়া রিপন,১নং ওয়ার্ড মেম্বার বীর মুক্তিযুদ্ধা সিরাজুল হক মোল্লা,ইউনিয়ন আলীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ ইবনে রহিজ মিঠু আব্দুল্লাহ আল মামুন ও আ’লীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মী সহ এলাকাবাসী।

মহান আল্লাহ তায়ালার গুণবাচক ৯৯ নাম খচিত দৃষ্টিনন্দন ভাস্কর্যই এ চত্বরের আকর্ষণ।যার ফলে দিনদিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কান্দাইল বাসষ্ট্যান্ড।

সম্প্রতি আমদিয়া ইউপি চেয়ারম্যানের উদ্যোগে কান্দাইল বাসস্ট্যান্ডে এটি স্থাপন করা হয়।

ভাস্কর্য স্থাপনকৃত এ চত্বরটির নাম দেয়া হয়েছে আল্লাহু চত্বর। চত্বরটির মাঝখানে সু-বিশাল একটি পিলারে চারপাশে খোদাই করে লেখা হয়েছে আল্লাহর ৯৯টি নাম এবং চূড়ায় বড় করে লেখা হয়েছে “আল্লাহু”।

মোটামুটি দূর থেকেই মহাসড়কের পাশে কান্দাইল বাসস্ট্যান্ডে এটি চোখে পড়ে। তাই প্রতিদিনই দূর-দূরান্তের যাত্রীসহ ড্রাইভাররা গাড়ি থামিয়ে এক পলক চোখ বুলিয়ে নিচ্ছেন সুদৃশ্য এ ভাস্কর্যটিতে। এছাড়াও প্রতিদিনই বাড়ছে ভাস্কর্যটির পাশে দর্শনার্থীদের ভীড়।

এলাকাবাসী জানায়, মাত্র কয়েক বছর আগেও দুর্ঘটনা প্রবণ হিসেবে চিহ্নিত এ এলাকাটি ছিলো প্রায় জনমানবশূন্য। কিন্তু বর্তমান আমদিয়া ইউ,পি চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন ভূইয়া রিপন ও ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সিরাজুল হক মোল্লার উদ্যোগে এ বাসষ্ট্যান্ডটি প্রতিষ্ঠিত হবার পর থেকে দিনে দিনে তা জনপ্রিয় ও লোকারন্য হয়ে ওঠে।

এখানে গড়ে উঠেছে দুটি মার্কেট, যেখানে সর্ব প্রকার দ্রব্যাদী কেনাকাটার জন্য রয়েছে রকমারি দোকানপাট। এছাড়াও আমদিয়া ইউনিয়েনের বিভিন্ন গ্রামে যাতায়াতের জন্য এখানে রয়েছে সি,এন,জি ও অটো রিক্সার ষ্টেশন।

ইউনিয়ন পরিষদের অর্থায়নে এখানে আল্লাহু চত্বরটি গড়ে উঠায় বাসষ্ট্যান্ডটি আরও জনপ্রিয় ও আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে। যার প্রশংসা রয়েছে এলাকাবাসী,পথচারী ও দর্শনার্থীদের মুখে মুখে। জেলায় সর্ব প্রথম আল্লাহর নামে স্থাপিত এই চত্বরটি সবচেয়ে সেরা চত্বর এবং চত্বরটি চেয়ারম্যান, মেম্বারের উত্তম কাজের একটি মাইল ফলক হয়ে থাকবে বলেও বিশ্বাস স্থানীয় এলাকাবাসীর।



মন্তব্য চালু নেই