আসি আসি বলেও আসলেন না বিএনপির সিনিয়র নেতারা!

জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রাজধানীতে বিএনপির সমাবেশ করেছে বিএনপি। তবে কেন্দ্রীয় সমাবেশে ছিলেন না কোনো সিনিয়র নেতা। সমাবেশে বিএনপি নেতারা বলেন, খেতাব কেড়ে নিয়ে জিয়ার অবদান মুছে দেওয়া যাবে না।

কর্মসূচি কেন্দ্রীয় সমাবেশের থাকলেও আসেন নি কোনো নীতি নির্ধারণী পর্যায়ের সিনিয়র নেতা, ছিল না কর্মী-সমর্থকদের উল্লেখযোগ্য সমাগম। দলের স্থায়ী কমিটির নেতারা আসবেন বলে বার বার মাইকে ঘোষণা করা হলেও শেষ পর্যন্ত দেখা মেলেনি তাদের কারো।

শেষমেশ মধ্যম সারির নেতাদের দিয়েই সম্পন্ন করা হয় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় আয়োজিত এই প্রতিবাদ কর্মসূচি। সমাগম তুলনামূলক কম হওয়ায় একটি লেনে যান চলাচল অব্যাহত ছিল।

সমাবেশে যোগ দিয়ে জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেন বিএনপি নেতারা।

এ সময় রুহুল কবির রিজভী বলেন, খেতাব কেড়ে নিয়ে জিয়াউর রহমানের অবদান মুছে ফেলা যাবে না।

আর কোনো সিনিয়র নেতা না আসায় সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমান উল্লাহ আমান। সমাবেশে আসতে নেতাকর্মীদের বাধা দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন তিনি।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের চিন্তা করলে সরকারের হাত জ্বলে-পুড়ে ছারখার হয়ে যাবে। সরকারের পায়ের নিচে মাটি নেই। সরকারের সাথে জনগণ নেই।

সমাবেশকে কেন্দ্র করে প্রেসক্লাব ও আশপাশের এলাকায় সকাল থেকেই মোতায়েন ছিল বিপুল সংখ্যক পুলিশ।
তথ্যসূত্র: সময় টিভি নিউজ।



মন্তব্য চালু নেই