মেইন ম্যেনু

ইউএনও`র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে বন্ধ, বরের কারাদন্ড

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাল্য বিয়ে করতে গিয়ে এক মাসের কারাদন্ডে দন্ডিত হয়েছেন রহমত মিয়া(২২)নামক এক যুবক।বুধবার বিকেল তিনটায় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পঙ্কজ বড়ুয়া বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে তাকে এই সাজা দেন।দন্ডপ্রাপ্ত রহমত মিয়া সদর উপজেলার মজলিশপুর ইউনিয়নের দারমা গ্রামের তাহের মিয়ার ছেলে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নের সুতিয়ারা গ্রামের মো.হাবিবুর রহমানের মেয়ে লিজা বেগম(১৪)এর সাথে একই উপজেলার মজলিশপুর ইউনিয়নের দারমা গ্রামের তাহের মিয়ার ছেলে রহমত মিয়ার বুধবার দুপুরে বিয়ে হওয়ার কথা ছিলো।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষয়টি জানতে পেরে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পঙ্কজ বড়ুয়ার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতে বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেন।

এসময় অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে বিয়ে করতে আসার দায়ে বর রহমত মিয়াকে ১ মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন এবং কনে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না এই মর্মে তার পিতার কাছ থেকে মুচলেকা আদায় করেন।

এই ব্যাপারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পঙ্কজ বড়ুয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বাল্য বিয়ের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।



মন্তব্য চালু নেই