শিরোনাম:

ইউক্রেন যেসব এলাকা থেকে বেসামরিক লোকদের সরিয়ে নিচ্ছে

রুশ সেনাদের হাত থেকে কয়েক দিন আগে দক্ষিণাঞ্চলের খেরসন শহর পুনর্দখল করেছে ইউক্রেনের সেনারা। তবে শহরটি থেকে আবারও বেসামরিক লোকদের সরিয়ে নিচ্ছে ইউক্রেন সরকার। এর সঙ্গে মাইকোলাইভের বাসিন্দাদেরও অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।সোমবার ইউক্রেনের উপপ্রধানমন্ত্রী ইরিনা এই ঘোষণা দিয়েছেন। খবর আলজাজিরার।

ইউক্রেনের উপপ্রধানমন্ত্রী ইরিনা ভেরেশচুক জানান, যেসব বাসিন্দা শহর দুটি ছেড়ে আসবেন তাদের থাকা-খাওয়া ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করবে সরকার। এছাড়া নারী ও শিশুদের অগ্রাধিকার দেওয়ার কথাও জানিয়েছেন তিনি।

রাশিয়ার গোলাবর্ষণের কারণে এ শহর দুটির জ্বালানি স্থাপনাসহ গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোর বেশিরভাগ ধ্বংস হয়ে গেছে। ফলে শীতে টিকে থাকার মতো ও ঘর উষ্ণ রাখার মতো পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ পাবেন না বাসিন্দারা। এ কারণে তাদের সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।

ইউক্রেনের কর্মকর্তারা দক্ষিণাঞ্চলের এ দুটি শহরের বাসিন্দাদের কেন্দ্রীয় ও পূর্ব দিকের নিরাপদ স্থানগুলোতে সরে যেতে বলেছেন।

এদিকে বিশ্বের অন্যতম একটি শীতপ্রধান দেশ হলো ইউক্রেন। শীতকালে দেশটিতে তাপমাত্রা শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে যায়। ইতোমধ্যে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ ও অন্যান্য শহরে তুষারপাত হয়েছে।

ইউক্রেনকে শান্তি আলোচনায় বাধ্য করতে ও সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে এখন দেশটির জ্বালানি অবকাঠামো লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে রুশ সেনারা। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি জানিয়েছেন, রাশিয়ার হামলায় তাদের ৫০ ভাগ জ্বালানি অবকাঠামো ধ্বংস হয়ে গেছে।