মেইন ম্যেনু

ইসরাইলকে দিয়ে সংঘাত উসকে দিচ্ছে আমিরাত : আলজাজিরা

লিবিয়ার সংঘাতে বিদ্রোহী নেতা খলিফা হাফতারকে ইসারাইলের মাধ্যমে অস্ত্রের চালান দিচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। আলজাজিরার আরবি সংস্করণের বরাত দিয়ে তুরস্ক ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম ইয়েনি শাফাক এ খবর জানায়।

এতে বলা হয়েছে, আলজাজিরা তাদের স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ছবিতে দেখতে পেয়েছে, জর্ডান, মিসর ও ইসরাইলে থামার পর দুটি মালবাহী বিমান লিবিয়ায় হাফতারের সামরিক ঘাঁটিতে অবতরণ করেছে।

অতি সম্প্রতি দেশটির রাজধানী ত্রিপলিতে হামলার আগে ওই ছবিটি তোলা হয়। যেখানে দেখা যাচ্ছে, ওই এলাকায় প্রচুর মানুষের বসবাস।

প্রতিবেদনটিতে আরও বলা হয়, রেম ট্র্যাভেল নামক একটি কোম্পানির অন্তর্গত দুটি ইলোশিন ৭৬ মালবাহী বিমান যেগুলোর যৌথভাবে মালিক সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং কাজাখিস্তান। এগুলো এপ্রিলে কয়েকবার চলাচল করেছিল।

আলজাজিরা বলছে, মালবাহী বিমান চলাচলের বিষয়টি তাদের কাছে প্রমাণ রয়েছে। বিমানগুলো প্রকৃতপক্ষে হাফতার-নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে অস্ত্র ও গোলাবারুদ বহন করেছে।

আলজাজিরার হাতে যে প্রমাণ রয়েছে এ কথা বলতে বুঝানো হয়েছে, গত মাসের শুরুতে, হাফতার ত্রিপোলিকে ধরে রাখার জন্য ব্যাপক প্রচারণা চালায়, যেখানে লিবিয়া জাতিসংঘের স্বীকৃত জাতীয় সরকার রয়েছে।

পরবর্তী মাসে হাফতার ত্রিপলিতে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ করেছে। যাই হোক, হাফতার প্রাথমিকভাবে তাদের লক্ষে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়েছে।

দেশটির নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফিকে নির্বাসন ও হত্যার পর ২০১১ সাল থেকে লিবিয়া অশান্ত। তেল সমৃদ্ধ দেশ লিবিয়ায় দুটি বিপরীতধর্মী ক্ষমতায় চলছে। একটি পশ্চিম লিবিয়া যেখানে হাফতার নেতৃত্ব দিচ্ছে। অন্যটি ত্রিপলি যেখানে জাতিসংঘ স্বীকৃত ক্ষমতা উপভোগ করছে।



মন্তব্য চালু নেই