মেইন ম্যেনু

একমাসের সন্তানকে নিয়ে কাঠগড়ায় মণি, শুনল ফাঁসির আদেশ

ফেনীর সোনাগাজীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় করা মামলার রায়ে ১৬ জনের মৃত্যুদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১৬ আসামির একজন হলেন-কামরুন নাহার মণি। নুসরাতের সহপাঠী ও বান্ধবী ছিলেন মণি। পাঁচ মাসের গর্ভের সন্তান নিয়েই নুসরাত কিলিং মিশনে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। এই মণিই প্রথম নুসরাতের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন।

গত ২১ সেপ্টেম্বর কন্যাসন্তানের জন্ম দেন মণি। সেই সন্তান কোলে নিয়েই রায় ঘোষণায় গিয়েছিলেন আদালতে। সেখানে সদ্য ভূমিষ্ঠ কন্যাসন্তান নিয়ে ফাঁসির আদেশ শুনতে হলো তাকে। রায় ঘোষণার আগে সদ্য ভূমিষ্ঠ হওয়া সন্তানকে কোলে নিয়ে আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়ান মনি। সে সময় শিশুটির শরীরে একটি তোয়ালে পেঁচানো অবস্থায় দেখা যায়।

এর আগে অন্তঃসত্ত্বা থাকার কারণে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দিয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে বিচারকাজে অংশ নেয়ার আবেদন জানালে আদালত সেটা নামঞ্জুর করেন।



মন্তব্য চালু নেই