মেইন ম্যেনু

একাধিক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে উপসচিব গ্রেফতার

একাধিক ছাত্রীকে ধর্ষণ করার ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকির অভিযোগে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাময়িক বরখাস্ত হওয়া উপসচিব এ কে এম রেজাউল করিম রতনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার রাতে তাকে গ্রেফতারের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ধানমন্ডি জোনের অতিরিক্ত কমিশনার আবদুল্লাহ আল কাফি।

উপসচিব এ কে এম রেজাউল করিম মোহাম্মদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের দায়িত্বে ছিলেন।

এবিষয়ে পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার কাফি বলেন, একাধিক ছাত্রীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে রেজাউল করিমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। পরে জুলাই মাসে এক ছাত্রীর করা মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকজন ছাত্রী যৌন নিপীড়নের অভিযোগ করেছেন।

জানা গেছে, গত জুলাই মাসের একটি মামলায় রেজাউল করিম রতনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেয় পুলিশ। পরে রতনকে সাময়িক বরখাস্ত করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। প্রভাবশালীদের চাপে জামিন অযোগ্য মামলায় চার্জশিটভুক্ত আসামি হয়েও জামিন পেয়ে যান রতন। জামিন পেয়ে তিনি একাধিক ছাত্রীকে হুমকিও দেন। পরে এর মধ্যে আরো ছাত্রী তার বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তোলেন।

অভিযোগ রয়েছে ২০১৭ সালে মোহাম্মদপুর সরকারি কলেজে অধ্যক্ষের কক্ষে ডেকে এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন রতন। সেই ঘটনা ভিডিও করেন তিনি। ওই ভিডিও প্রকাশের হুমকি দিয়ে তিনি ওই ছাত্রীকে এক বছর ধরে যৌন নিপীড়ন করছিলেন। রতন বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা। গত বছর তিনি কোটায় উপসচিব পদে পদোন্নতি পান এবং তিনি সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত থেকে ওই কলেজের অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করছিলেন।



মন্তব্য চালু নেই