মেইন ম্যেনু

এবার ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনির পর এবার দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রণালয় এই নিষেধাজ্ঞা অরোপ করেছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বিবিসির প্রদিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে থাকা ও যুক্তরাষ্ট্রের কোনোও সংস্থা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত জাভেদ জারিফের যেকোনো সম্পদ বাজেয়াপ্ত করা হবে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এমন নিষেধাজ্ঞার জবাবে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক টুইটবার্তায় জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্র তাকে হুমকি বলে মনে করে। তাই এ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

এ সময় তিনি আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে তার বা তার পরিবারের কোনো সম্পদ নেই। তাই তার ওপর নিষেধাজ্ঞায় নিজের ও ইরানের কোনো ক্ষতি হবে না।

মার্কিন অর্থমন্ত্রী স্টিভেন মুচিন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিষেধাজ্ঞার কারণ হিসেবে বলেছেন, ইরানের সর্বোচ্চ নেতার (আয়াতুল্লাহ খোমেনির) বেপরোয়া বিভিন্ন এজেন্ডা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন জাভেদ জারিফ। তাই তার ওপর এ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে হওয়া পরমাণু চুক্তি থেকে গত বছর বেরিয়ে যায় যুক্তরাষ্ট্র। তারপর থেকেই দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

তবে সাম্প্রতিক সময়ের বেশ কিছু ঘটনার কারণে পারস্য উপসাগরেও উত্তেজনা শুরু হয়েছে। এর ফলে ওই অঞ্চলে সামরিক সংঘাত শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

হোয়াইট হাউসের নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন বুধবার এক বিবৃতিতে বলেন, এটা ৯০ দিনের একটি সংক্ষিপ্ত নিষেধাজ্ঞা।

এর আগে চলতি বছরের ২৪ জুন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ট্রাম্প। এবার এলো পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ওপর।

সূত্র: বিবিসি



মন্তব্য চালু নেই