মেইন ম্যেনু

এবার গুলশানের স্পা সেন্টারে পুলিশের অভিযান, আটক ১৯

রাজধানীতে জুয়ার আসর ও ক্যাসিনোতে অভিযানের পর এবার স্পা সেন্টারগুলোতে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। রোববার রাত ৯টার দিকে গুলশানের নাভানা টাওয়ারের ১৮, ১৯ ও ২০ তলায় অবস্থিত তিনটি স্পা সেন্টারে অভিযান শুরু করে গুলশান থানা পুলিশ। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১৯ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

স্পা সেন্টারগুলো হলো- লাইভ স্টাইল হেল্থ ক্লাব অ্যান্ড স্পা অ্যান্ড সেুলন, ম্যাঙ্গো স্পা ও রেডিডেন্স সেলুন-২ অ্যান্ড স্পা।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশের গুলশান জোনের ডিসি সুদীপ কুমার চক্রবর্তী। তিনি বলেন, আমাদের কাছে অভিযোগ আছে সেখানে স্পার পাশাপাশি অসামাজিক কার্যক্রম পরিচালনা হয়। এ অভিযোগ ক্ষতিয়ে দেখতে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। সেখান থেকে ১৬ জন নারী ও ৩ জন পুরুষ আটক করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এর আগে, অবৈধভাবে ক্যাসিনো ও জুয়া চালানোর দায়ে রাজধানীতে চার ক্লাবে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে পুলিশ। একই সঙ্গে ক্লাবগুলো থেকে ক্যাসিনো ও জুয়া খেলার সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে। ক্লাবগুলো হলো- মতিঝিলের আরামবাগ, দিলকুশা, ভিক্টোরিয়া ও মোহামেডান।

রোববার বিকেল ৩টার দিকে ডিসি আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে ভিক্টোরিয়া ও মোহামেডান ক্লাব এবং এডিসি শিবলি নোমানের নেতৃত্বে আরামবাগ ও দিলকুশা ক্লাবে অভিযান চালায় পুলিশ।

প্রায় চার ঘণ্টার অভিযানে ক্লাবগুলো থেকে বিপুল পরিমাণ ক্যাসিনো ও জুয়ার সামগ্রী উদ্ধার করা হয়। সেই সঙ্গে পাওয়া যায় নেশা সামগ্রী। অভিযান শেষে সন্ধ্যা ৭টার দিকে চারটি ক্লাবেই তালা ঝুলিয়ে দেয়া হয়। একই সঙ্গে ক্লাবগুলোতে থাকা ক্যাসিনো ও জুয়ার সামগ্রী জব্দ করে নিয়ে যায় পুলিশ।

ভিক্টোরিয়া ও মোহামেডান ক্লাব দুটি পাশাপাশি অবস্থিত। এর মধ্যে ভিক্টোরিয়া ক্লাবে অভিযান চালিয়ে নগদ এক লাখ টাকা, মদ, বিয়ার, জুয়া ও ক্যাসিনোর সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে পুলিশ। ভিক্টোরিয়া ক্লাব থেকে বের হয়ে ডিসি আনোয়ারের নেতৃত্বে পুলিশ মোহামেডান ক্লাবে প্রবেশ করে। এ ক্লাব থেকেও বিপুল পরিমাণ ক্যাসিনো ও জুয়ার সামগ্রী উদ্ধার করে।



মন্তব্য চালু নেই