শিরোনাম:

এশিয়ার সর্ববৃহৎ ঈদের জামাতের জন্য প্রস্তুত দিনাজপুরের গোর-এ শহীদ

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামিকাল এশিয়ার সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত দিনাজপুরের গোর-এ শহীদ কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিত হবে।
কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে বিশাল জামাতে নামাজ আদায়ের জন্য সাধারণ মুসল্লিরা অপেক্ষায় আছেন।

সকাল ৯টা ঈদের জামাতে ইমামতি করবে মৌলানা শাসসুল হক কাছেমী। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে নামাজ আদায়ের জন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ঈদগাহ মাঠজুড়ে নেয়া হচ্ছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

সব প্রস্তুতি দেখতে সোমবার সকালে ঈদগাহ মাঠ পরিদর্শন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ইকবালুর রহিম, জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী ও পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন।

করোনাভাইরাসের কারণে দুই বছর দিনাজপুরের গোর-এ শহীদ কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়নি। এবার আগে থেকে সব প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন জানান, নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। চার স্তরের এই নিরাপত্তা বলয়ে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও আনসার সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন।

এদিকে ঈদগাহ মাঠ কমিটির সমন্বয়ক জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী জানান, মুসল্লিরা যাতে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে নামাজ আদায় করতে পারেন সে জন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিমের প্রত্যাশা এশিয়ার সর্ববৃহৎ এই জামাতে কয়েক লাখ মুসল্লির সমাগম হবে। জেলা শহরের বাইরেও বিভিন্ন উপজেলা এবং আশপাশের বিভিন্ন জেলার মুসল্লিরা এই বিশাল জামাতে শরিক হবেন।

২০১৭ সালে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত দিনাজপুরের ঐতিহাসিক গোর-এ-শহীদ বড় ময়দানে দেশের বৃহত্তম দৃষ্টিনন্দন ৫২ গম্বুজের বিশাল ঈদগাহ মিনার। ২২ একর আয়তনের এই ময়দানে একসঙ্গে ৫ লাখ মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন।