প্রধান ম্যেনু

ঐক্যফ্রন্টে ভাঙন, জোট ছাড়লেন কাদের সিদ্দিকী

আট মাস পর ড. কামাল হোসেন নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে বেরিয়ে গেলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী। তার ভাষায়, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নামে যে জোট তারা গড়েছিলেন, নির্বাচনের পর গত সাত মাসে তার কোনো অস্তিত্ব এখন খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

এমনকি, জাতীয় কোনো সমস্যাকে তারা তুলে ধরতে পারছে না। এরকম একটি জোট যে আছে তা দেশের মানুষ জানেই না।

এসব কারণ দেখিয়ে সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে তার সিদ্ধান্তের কথা জানান বঙ্গবীর খ্যাত প্রবীণ এই নেতা।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ১৩ অক্টোবর সরকারবিরোধী আন্দোলনের অংশ হিসেবে গঠন হয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। সবচেয়ে বড় দল বিএনপি হলেও জোটের প্রধান নেতা হিসেবে আবির্ভুত হন গণফোরামের সভাপতি ড.কামাল হোসেন। অন্য দল ও সংগঠনগুলো ছিল জেএসডি, নাগরিক ঐক্য। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ চৌধুরীও শুরু থেকেই ছিলেন এই জোটে। পরে ব্যক্তিগতভাবে যোগ দেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা মইনুল হোসেন।

গত ৫ নভেম্বর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যোগ দেন সাবেক কাদের সিদ্দিকী। ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে টাঙ্গাইল-৮ আসনে প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন তিনি। তবে খেলাপি ঋণ থাকায় সেটা সম্ভব ছিল না। পরে তার মেয়ে কুড়ি সিদ্দিকী সেখান থেকে লড়ে পরাজিত হন।



মন্তব্য চালু নেই